দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪০ হাজারের গণ্ডি ছাড়িয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় এবার তৃতীয় দফার লকডাউন ঘোষণা করেছে ভারত সরকার। সোমবার থেকে ১৭ মে পর্যন্ত ১৪ দিনের জন্য এবার লকডাউন ঘোষণা করেছে কেন্দ্র। এই পরিস্থিতিতে সোমবার লকডাউনের প্রথম দিন করোনা মহামারীর মোকাবিলায় বিশ্বের দরবারে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী নেরন্দ্র মোদী। নন অ্যালাইন্ড মুভমেন্ট (নাম) বা নিরপেক্ষ দেশগুলির  এই ভার্চুয়াল বৈঠকে মোদীর পাশাপাশি অংশ নিচ্ছেন পাকিস্তানের পাষ্ট্রপতি আরিফ আলভি। 

আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলাম আলাউভের নেতৃত্বে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মহামারীর আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসের মোকাবিলা নিয়ে এই বৈঠক হচ্ছে। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রতিটি সদস্য দেশের রাষ্ট্রনেতারা এতে অংশ নেবেন। রাষ্ট্রসংঘের পর নাম বিশ্বের দেশগুলির সবচেয়ে বড় সংগঠন, যেখানে এশিয়া,  আফ্রিকা ও ল্যাটিন আমেরিকার ১২০টি দেশ রয়েছে। 

আমেরিকায় আক্রান্তের সংখ্যা ১১ লক্ষ, বছরের শেষেই আসছে করোনা ভ্যাকসিন, আশ্বাস দিলেন ট্রাম্প

রেড জোনের সংখ্যা নিয়ে বিরোধ, সংশোধিত তালিকা দাবি করে কেন্দ্রকে চিঠি বাংলার স্বাস্থ্যসচিবের

করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়েছেন তিনি, এবার স্বামীর আরোগ্য চেয়ে নার্সের পায়ে পড়লেন স্ত্রী

জানা যাচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু-এর ডিরেক্টর জেলারেল এবং রাষ্ট্রসংঘের প্রধান দুজনেই অংশ নিতে পারেন। এই বৈঠকে করোনা মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের কৌশল অন্যান্য দেশগুলির কাছে তুলে ধরবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। গত কয়েকদিন ধরে বিশ্বের নানা দেশে হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন সরবরাহ করে প্রশংসা অর্জন করেছে ভারত। উল্লেখ্য ভারত এখনও পর্যন্ত বিশ্বের ৮৭টি দেশে ২ কোটি ৮০ লক্ষ হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন রফতানি করেছে। 

করোনা আক্রান্ত দেশগুলিকে একত্রিত করতেই এই সম্মেলনের আয়োজন। ২০১৬ সালে প্রথমবার নামে অংশ নেন মোদী। ২০১৯ সালে নিরপেক্ষ দেশগুলির বৈঠকে ভাষণ দিয়ে সকলের নজর কেড়েছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।