স্বাধীনতার ৭৫ বছর পূর্তির বছরটি মহাধুমধামের সঙ্গে উদযাপন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।  চলতি বছর থেকেই যার কার্যক্রম শুরু হবে। আগামী ১২ মার্চ থেকে শুরু হবে 'আজাদিকা অমৃত মহোৎসব'। গুজরাতে এই অনুষ্ঠানের সূচনা করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সবরমতি আশ্রম থেকে ২১ দিনের ডান্ডি মার্চও করা হবে স্বাধীনতা আন্দোলনের কথা স্মরণ করে। এই অনুষ্ঠান নিয়েই সংসদে একটি বিবৃতি দেওয়ার কথা ছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। কিন্তু তা প্রধানমন্ত্রী দিতে পারেননি বলেই জানিয়েছেন সংসদীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশি। 

সংসদীয় মন্ত্রী জানান  আজাদিকা অমৃত মহোৎসব নিয়ে এটি যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল। প্রধানমন্ত্রীর বিবৃতির জন্য় মাত্র পাঁচ মিনিট সময় চাওয়া হয়েছিল। লোকসভার অধ্যক্ষ রাজিও ছিলেন। কিন্তু কংগ্রেসের জন্যই তা সম্ভব হয়নি বলেও অভিযোগ করেন তিনি। তিনি বলেন নিজেদের কৌশলগত অবস্থান একই রেখেছিল। দ্বিতীয়বারের জন্য সময় চাওয়া হলেও কোনও রকম সহযোগিতা করেনি দলটি।  কংগ্রেস বাদে বাকি সবদলদগুলি সহযোগিতা করেছিল বলেও জানিয়েছেন তিনি।  প্রহ্লাদ যোশী বলেন, যখনই সভার সদস্যরা একমত হবেন তখনই প্রধানমন্ত্রী বিবৃতি দেবেন। এখনও কংগ্রেস বেঁকে বসে রয়েছে বলেও সূত্রের খবর। 

তবে তার আগে লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা সভাপতিত্ব করেও সমস্ত দলের ফ্লোর নেতাদের বৈঠকে সংসদের অধিবেশ শেষ করতে পারে। সূত্রের খরব সেই বিষয়েও কংগ্রেস বাদে সকল রাজনৈতিক দল একমত হয়েছিল।