ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থা এখনও যথেষ্ট সঙ্কটজনক। তাঁকে ভেন্টিলেশনেই রাখা হয়েছে। দিল্লি ক্যান্টনমেন্টের সেনা হাসপাতাল সূত্রে এমনটাই জানা যাচ্ছে। দেশের প্রথম বাঙালি রাষ্ট্রপতির ভাইটাল ও ক্লিনিক্যাল প্যারামিটারগুলি স্থিতিশীল রয়েছে বলেই হাসপাতালের বুলেটিনে জানানো হয়েছে। তাঁকে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

গত ৯ আগস্ট, রবিবার রাতে ১০ নম্বর রাজাজি মার্গের বাড়িতে বাথরুমে পড়ে যান প্রণব মুখোপাধ্যায়। মস্তিষ্কে চোট লাগায় কারণে সোমবার হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে।  মস্তিষ্কে জমাট বাঁধা রক্ত বার করতে জরুরি ভিত্তিতে অস্ত্রোপচার করতে হয়। তার পরে তিনি গভীর কোমায় চলে যান।মস্তিষ্কে সেই অস্ত্রোপচারের ইতিমধ্যে এক সপ্তাহ পার হয়ে গিয়েছে। কিন্তু প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থা এখনও সঙ্কটজনক।  

আরও পড়ুন: আবারো তাক লাগাতে চলেছে ভারতীয় রেল, মণিপুরে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের উচ্চতম পায়ার রেল সেতু

১০ আগস্ট হাসপাতালে পরীক্ষার সময় প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শরীরে  করোনাভাইরাসের সংক্রমণও ধরা পড়েছিল। তিনি এখনও করোনা পজিটিভ বলেই হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে।  এদিকে রবিবার প্রণব পুত্র অভিজিত মুখোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, চিকিত্সায় সাড়া দিচ্ছেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। ট্যুইটে জঙ্গিপুরের প্রাক্তন সাংসদ অভিজিৎ মুখোপাধ্যায় লিখেছিলেন, " ভগবানের আশীর্বাদ ও আপনাদের সকলের শুভ কামনায় বাবা আগের থেকে ভাল আছেন। তিনি চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন। শীঘ্রই তিনি আমাদের মধ্যে ফিরে আসবেন।"

আরও পড়ুন: করোনা আবহে নির্দিষ্ট সূচি মেনেই হবে নিট ও জয়েন্ট, পরীক্ষা স্থগিতের আর্জি খারিজ শীর্ষ আদালতে

গত এক সপ্তাহ ধরে  ভারতীয় রাজনীতির অন্যতম প্রধান ব্যক্তিত্ব হাসপাতালে রয়েছেন। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃত্বের পাশাপাশি অগনিত সাধারণ মানুষও তাঁর আরোগ্য কামনা করে চলেছেন। তবে প্রণববাবুকে নিয়ে গুজবও কম রটেনি। তাঁর মৃত্যুর খবর সোশ্যাল মিডিয়াতে ছড়িয়েছিল। 
 নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিতে হয়েছিল মুখোপাধ্যায় পরিবারকে। বিরক্ত হয়ে ট্যুইট করেছিলেন প্রণব মুখোপাধ্যায়ের পুত্র অভিজিত ও কন্যা শর্মিষ্ঠা মুখোপাধ্যায়। তবে দিল্লির সেনা হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে প্রণববাবু গভীর কোমায় রয়েছেন।