আজ পয়লা বৈশাখ। বাংলার নতুন বছরের প্রথম দিন। এই দিন পৃথিবীর যে প্রান্তেই থাকুক না কেন, বাঙালি কখনও ভুলতে পারে না। কিন্তু এবছরের নববর্ষে একেবারে তাল কেটে গিয়েছে। করোনা সংক্রমণের জেরে গৃহবন্দি অবস্থাতেই নতুন বছরের সূচনা করতে হচ্ছে আপামর বাঙালিকে। মন্দিরে মন্দিরে পুজো, হাল খাতার ভিড়, সব কিছুই এবার অমিল। তবে নতুন বছর উপলক্ষ্যে অবশ্য রাজ্যবাসীকে শুভেচ্ছা জানাতে ভুললেন না দেশের প্রধানমন্ত্রী। পয়লা বৈশাখের সাত সকালে বাংলাতে শুভেচ্ছাবার্তা ট্যুইট করলেন প্রধানমন্ত্রী।
 
 
প্রধানমন্ত্রী নিজের  ট্যুইটে লেখেন , “শুভ নববর্ষ। পয়লা বৈশাখের শুভেচ্ছা গ্রহণ করুন। নতুন বছর আপনদের সকলের জীবনে সুখ, সমৃদ্ধির বার্তা নিয়ে আসুক। সকলে সুস্থ থাকুন, ভাল থাকুন।”



করোনায় ধুঁকছে ভারতের অর্থনীতি, ৩৫ শতাংশ বেতন কমিয়ে আশঙ্কা আরও বাড়াল দেশের নামী সংস্থা
আক্রান্তের সংখ্যা ৫ হাজার ছাড়িয়েছে, নাচতে ব্যস্ত পাক চিকিৎসকরা, ভিডিও শেয়ার করলেন গম্ভীর
ডিপার্টমেন্টাল স্টোর বাড়াচ্ছে সংক্রমণের আশঙ্কা, খোলা বাজারকেই ভোট বিশেষজ্ঞদের

এদিন বাঙালির যেমন নববর্ষ তেমনি দেশের নানা প্রান্তেও উদযাপন করা হয় নানা উৎসব।  তামিল নববর্ষ পুথাণ্ডু, কেরলের বিশু উৎসবের পাশাপাশি উদযাপিত হবে অসমের বিহু। মালায়লি, তামিল ও অহমিয়া ভাষাতেও ট্যুইট করে বিশু, পুথাণ্ডু ও বিহুর শুভেচ্ছা জানান প্রধানমন্ত্রী।

দেশবাসীকে সম্প্রীতির বার্তা দিয়ে শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি মনোবল বাড়াতে  করোনা যুদ্ধে জেতার কথাও বলেছেন প্রধানমন্ত্রী।
 
প্রধানমন্ত্রী যেমন দেশ থেকে করোনা সংক্রমণ দূর করতে লড়াই করছেন, তেমনি পিছিয়ে নেই এরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ত। রাত দিন রাজ্যবাসীকে সুস্থ রাখতে মারণ ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়ছেন তিনি। আর এর মাঝেই পয়লা বৈশাখের সকালে রাজ্যবাসীকে ট্যুইটে শুভেচ্ছা জানাতে ভোলেননি মুখ্যমন্ত্রী  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
 

প্রধানমন্ত্রীর মতই বাংলার পাশাপাশি মালায়লি, তামিল ও অহমিয়া ভাষাতেও ট্যুইট করে সকলকে উৎসবের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রার্থনা করেছেন সকলের সুস্থতার।