মাস খানেক আগেই ৩৫ নম্বর লোধী এস্টেটের সরকারি বাংলো খালি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে। সেইমত প্রিয়াঙ্কা বাংলো ছেড়েদিচ্ছেন খুব তাড়াতাড়ি। কিন্তু তারআগেই ওই সরকারি বাংলোর আগামী অথিতি বিজেপি নেতা তথা  উত্তরাখণ্ডের রাজ্যসভার সাংসদ অনিল বালুনি ও তাঁর স্ত্রীকে চায়ের আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। 

প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর তরফে বিজেপি নেতাকে আমন্ত্রণ পত্র পাঠানো হয়েছিল। পাশাপাশি টেলিফোনেও আমন্ত্রণ জানান হয়েছিল। প্রিয়াঙ্কার তরফ থেকে বলা হয়েছিল এটি নিছকই সৌজন্য সাক্ষাৎকার। পাশাপাশি বিজেপি নেতাকে তিনি জানাতেও চেয়েছেন নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই বাংলো ছেড়ে দেবেন তিনি। 

কংগ্রেস নেত্রীর  চায়ের  আমন্ত্রণের পরিবর্তি বিজেপি নেতা প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ও তাঁর পরিবারকে তাঁর বাড়িতে নৈশভোজের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। একটি সূত্র জানাচ্ছে বানুলি প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে লেখা চিঠিতে বলেছেন ক্যান্সারের চিকিৎসা করিয়ে তিনি সদ্যো দেশে ফিরেছেন। এই অবস্থায় চিকিৎসক তাঁকে বাড়িতে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। তিনি বর্তমানে দিল্লির একটি বাংলোতে রয়েছেন। সেখানেই নৈশভোজের আমন্ত্রণ জানাচ্ছেন। পাশাপাশি উত্তারাখণ্ডের একাধিক ঐতিহ্যবাসী খাবার পরিবেশন করবেন বলেও নাকি প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। 

করোনা সংক্রমণের মধ্যেই যুদ্ধের বার্ষিকী উজ্জাপন কিম জং-এর, জাতীয়তাবাদ জাগিয়ে তোলার চেষ্টা ...

করোনাভাইরাস সংক্রমণে জ্বর প্রধান লক্ষণ নয়, ধূমপায়ীদের কিছুটা হলেও স্বস্তি দিল নতুন সমীক্ষা ...


১৯৯৭ সাল থেকেই এই বাংলোটিতে রয়েছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। কিন্তু বর্তমানে তিনি যেহেতু এসপিজি সুরক্ষা পান না তাই বাংলো খালি করার নোটিশ পাঠান হয়েছে। সেই অনুযায়ী অবিলম্বে তিনি বাংলো খালি করে দেবেন বলেও জানিয়েছে। সূত্রের খবর পয়লা অগাস্ট গুরগ্রামে নিজের বাড়িতেই থাকবেন তিনি। পরবর্তীকালে যেতে পারেন উত্তর প্রদেশ।  কিন্তু ৩৫ নম্বর লোধী এস্টেটের বাংলোটি নিয়ে কংগ্রেস বিজেপির রাজনৈতিক তরজা শুরু হয়েছিল। আর সেই উত্তপ্ত রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে জল ঢালতেই কি কাজে দেবে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বা অনিল বালুনির সৌজন্য রাজনীতি। 

রাম মন্দিরের ২০০০ ফুট নিচে রাখা হবে টাইম ক্যাপসুল, বিতর্ক এড়াতেই এই আগাম ব্যবস্থা ...