ইরফানের মৃত্যের পর বুধবার থেকেই মন খাপার  টিনসেল টাউনের। সেই ধাক্কা এখনও কাটিয়ে উঠতে পারেনি মুম্বই। তারই মধ্যে বৃহস্পতিবার চলে গেলেন সকলের প্রিয় চিন্টু। আর পরপর দুই অভিনেতার মৃত্যুকে ভারতীয় সিনেমার ভয়ঙ্কর খারাপ সপ্তাহ বলেই বর্ণনা করলেন রাহুল গান্ধি। পাশাপাশি ঋষি কাপুরের মৃত্যুতে শোক প্রাকাশও করেন। 

কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধির কথায় ঋষি কাপুর দুর্দান্ত অভিনেতা। দীর্ঘ সময় জুড়েই দাপিয়ে বেড়িয়েছেন রুপলি পর্দায়। ঋষির অনুগামীর সংখ্যাও প্রচুর। বর্তমানে তাঁর অনুগামীরা তাঁকে খুবই মিস করবেন। ঋষির মৃত্যুর পরই প্রয়াত অভিনেতার পরিবার, বন্ধু ও অনুগামীদের সমবেদনা জানিয়েছেন রাহুল গান্ধি। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই বার্তা দেন ওয়াইনাডের সাংসদ।

আরও পড়ুনঃ প্রয়াত হলেন বলিউডের বর্ষীয়ান অভিনেতা ঋষি কাপুর, চলচ্চিত্র মহলে শোকের ছায়া ...

আরও পড়ুনঃ নারী প্রধান ছবিতে অভিনয় করতেন অম্লানবদনে, চলে গেলেন বলিউডের 'ভদ্র প্রেমিক' ...

বেশ কয়েক বছর ধরেই ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলেন ঋষি কাপুর। চিকিৎসার জন্য আমেরিকাও গিয়েছিলেন। সেখানেই ছিলেন দীর্ঘ সময়। কিন্তু কয়েক মাস আগেই তিনি দেশে ফিরে আসেন। একটি ছবিতে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধও হয়েছিলেন। সেই ছবির কাজ এখন অসমাপ্ত। বৃহস্পতিবার মুম্বইয়ের হাসপাতালে ৬৭ বছরে মৃত্যু হয় মুম্বই চলচ্চিত্রের চকোলেট বয় হিসেবে খ্যাত ঋষি কাপুরের।