বন্যার জেরে বানভাসি অসমে পরিস্থিতি ক্রমশই ভয়ঙ্কর থেকে ভয়ঙ্করতম রূপ ধারণ করছে। সবথেকে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে কাজিরাঙ্গা জাতীয় উদ্যানের পশুদের জীবন। অসমের কাজিরাঙ্গা জাতীয় উদ্যানের প্রায় সত্তর শতাংশ এলাকা বন্যা বিধ্বস্ত। পরিস্থিতি সামাল দিতে কিছুদিন আগেই কাজিরাঙ্গা জাতীয় উদ্যানে কর্মরত সমস্ত কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করে দেওয়া হয়েছে এবং বন্যপ্রাণীদের যাতে কোনওরকম সমস্যা না হয় তার দিকে বিশেষ গুরুত্ব প্রদান করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

 

আর এবার সেই বন্যাকবলিত বন্যপ্রাণীদের সুরক্ষার প্রসঙ্গে মুখ খুললেন ক্রিকেট তারকা রোহিত শর্মা। একটি টুইট করে কাজিরাঙ্গা জাতীয় উদ্যানের পাস দিয়ে গাড়ি চালানোর ক্ষেত্রে অসমের মানুষদের সচেতন করলেন রোহিত। তিনি বলেন, কাজিরাঙ্গা ন্যাশনাল পার্কের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময়ে সকলে ধীরে এবং নিরাপদভাবে গাড়ি চালান কারণ বন্যপশুদের রাস্তা ছাড়া কোথাও যাওয়ার জায়গা নেই। অবলা প্রাণীদের জন্য প্রার্থনাও করেছেন রোহিত। এই পরিস্থিতি থেকে যাতে উদ্ধার পায় বনের প্রাণীরা সেই প্রার্থনাই করেছেন রোহিত। 

প্রসঙ্গত একশৃঙ্গ গণ্ডারের জন্য বিখ্যাত এই জাতীয় উদ্যানে একশৃঙ্গ গণ্ডার ছাড়াও বাঘ এবং হাতিও রয়েছে। সাম্প্রতিক বন্যায় বিপর্যস্ত বন্যপ্রাণীদের সরিয়ে নিয়ে যাওয়া  হচ্ছে অপেক্ষাকৃত উঁচু জায়গায়। অসমের জাতীয় সড়ক এনএইচ ৩৭-এ চোরাশিকারিদের ওপর কড়া নজর রাখা হচ্ছে, কারণ এই পরিস্থিতির সুযোগ নিতে  পারে চোরাশিকারিরাও। পাশাপাশি বনদফতরের তরফ থেকেও জাতীয় সড়কের ওপর দিয়ে সাবধানে এবং ধীরে গাড়ি চালানোর নির্দেশ দিয়েছেন।