আগামী শনিবার থেকে দেশে শুরু হচ্ছে করোনাভাইরাসের টিকাকরণ কর্মসূচি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কথায় বিশ্বের বৃহৎ টিকাকরণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে আমাদের দেশে। সেইমত প্রস্তুতি শুরু করেছে কেন্দ্রীয় সরকর। মঙ্গলবার ভোররাতে সেরাম ইনন্টিটিউট প্রথম ভ্যাকসিনের ট্রাকটি ছাড়ে। ট্রাকটির গন্তব্য ছিল পুনের বিমান বন্দর। 

টিকাকরণ শুরুর চারদিন আগে এদিন ভোর ৫টারও কিছু আগে সেরাম থেকে প্রথম তিনটি ট্রাক বাইরে আসে। প্রতিটি ট্রাকে ৪৭৮টি টিকার বাক্স রয়েছে। প্রতিটি বাক্সের ওজন ৩২ কোজি বলেই জানিয়েছে এক সেরাম কর্তা। টিকাগুলি সংরক্ষণের জন্য রেফ্রিজারেটরের ব্যবস্থা করা হয়েছে বলেও সূত্রের খবর। পুনে বিমান বন্দর থেকে ভ্যাকসিনগুলি দেশের ১৩টি স্থানে পাঠান হবে। পুনের আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে ভ্যাকসিন পরিবহনের দায়িত্বে থাকছে দেশের প্রথম সারির লজিস্টিক সংস্থাগুলি। 

সূত্রের খবর দুটি কার্গো বিমানসহ আটটি বাণিজ্য়িক বিমানে ভ্যাকসিনগুলি পুনে থেকে দেশের অন্যত্র পাঠান হয়েছে। প্রথম কার্গো ফ্লাইটটির গন্তব্য হল বিজয়ওয়াদা, ভূবনেশ্বর ও হায়রদারাবাদ।  দ্বিতীয় কার্গো বিমানটির গন্তব্য কলকাতা ও গুয়াহাটি। কেন্দ্রীয় সরকার ২০২১ সালে সেরামের থেকে ডোজ প্রতি ২০০ টাকা দিয়ে করোনা টিকা কেনার কথা হয়েছে। ইতিমধ্যেই সংস্থাটির সঙ্গে ৫.৬০ কোটি টাকার চুক্তি হয়েছে। চলতি বছর এপ্রিল মাসের মধ্যে ৪.৫০ কোটি ডোজে ওষুধ কেনার পরিকল্পনাও রয়েছে।