বর্তমান কৃষি আইন নিয়ে কেন্দ্রীয় সমালোচনা করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথা বললেন শরদ পাওয়ার। তৃণমূল কংগ্রেস সূত্রের খবর কেন্দ্রীয় কৃষি আইনের বিরোধিতায় জানুয়ারি মাসে সমস্ত আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলগুলি একত্রিত হয়ে কলকাতায় বিশেষ কর্মসূচি গ্রহণ করতে পারে। বিশেষ সভা আয়োজনের পরিকল্পনা রয়েছে বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির। সমস্ত আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলগুলি একযোগে পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপির বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলবেন। এর আগে লোকসভা নির্বাচনের আগে কলকাতা থেকে বিজেপির বিরুদ্ধে একত্রিত হয়ে আওয়াজ তুলেছিলেন বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি। এবার বিধানসভা নির্বাচনের আগে ফের আরও এক বার এই আওয়াজ উঠতে চলেছে কলকাতা থেকে। 


কৃষি আইন নিয়ে আগেই তৃণমূল কংগ্রেস সরব হয়েছে। দিল্লি উপকণ্ঠে আন্দোলনকারী কৃষকদের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথাও বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি আন্দোলনকারী কৃষকদের সবরকরমভাবে সাহায্য করার প্রতিশ্রুতি ও তাঁদের পাশে দাঁড়ানোর বার্তা দিয়েছেন। সংসদে যখন কৃষি আইন পাশ হয় তখন তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্যসভার সাসংদ ডেরেক ওব্রায়ন তুমুল হৈহট্টোগোল করেছিলেন। কৃষি বিল পাশের তীব্র বিরোধীতা করেন তিনি। কেন্দ্রীয় সরকারের একাধিক পদক্ষেপের তীব্র বিরোধিতা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

এছাড়া কেন্দ্রীয় সরকার যেভাবে যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো ভাঙ্গার চেষ্টা করছে সে বিষয়ে দুই রাজনৈতিক শীর্ষ নেতৃত্বের মধ্যে আলোচনা হয়েছে বলে সূত্র মারফত জানতে পারা গেছে। একই সঙ্গে তিন আইপিএস অফিসারকে সেন্ট্রাল ডেপুটেশনের যে নির্দেশ কেন্দ্রীয় সরকার দিয়েছে তাতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সুরে সুর মিলিয়ে কেন্দ্রের সমালোচনা করেছেন শরদ পাওয়ার।