Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Shashi Tharoor: 'আকর্ষণীয়' ৬ মহিলা সাংসদের সঙ্গে সেলফি, বিতর্কের মুখে ক্ষমা চাইলেন শশী

সংসদের শীতকালীন অধিবেশনের (Winter Session 2021) প্রথম দিনই বিতর্কে কংগ্রেস (Congress) সাংসদ শশী থারুর (Shashi Tharoor)। ছয় মহিলা সাংসদে সঙ্গে তিরুঅনন্তপুরমের (Thiruvananthapuram) সাংসদের সেলফি হল ভাইরাল (Viral Photo)।

Shashi Tharoor shares pic with attractive women MPs, Internet slams him ALB
Author
Kolkata, First Published Nov 29, 2021, 4:08 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

সংসদের শীতকালীন অধিবেশনের (Winter Session 2021) প্রথম দিনই অযাচিত বিতর্কে জড়ালেন কংগ্রেস (Congress) সাংসদ শশী থারুর (Shashi Tharoor)। সুপুরষ বলে খ্য়াতি আছে তাঁর। সোমবার তিনি প্রায় 'কলির কেষ্ট' মার্কা একটি ছবি টুইট করলেন, যেখানে তাঁর সঙ্গে দেখা গেল বেশ কয়েকজন মহিলা সাংসদকে। সেই ছবি সোশ্য়াল মিডিয়ায় ভাইরাল (Viral Photo) হতেই, এই ছবি নিয়ে তৈরি হল মহা বিতর্ক। আর শেষে ক্ষমা চেয়ে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করতে হল ত্রিরুঅনন্তপুরমের (Thiruvananthapuram) সাংসদকে। 

এদিন, সংসদের শীতকালীন অধিবেশনের প্রথম দিন বলে, প্রায় সকল সাংসদই লোকসভায় উপস্থিত ছিলেন। থারুরের সঙ্গে দলমত নির্বিশেষে ছয়জন মহিলা সাংসদকে সেলফি তুলেতে দেখা গিয়েছে। ছিলেন, অমরিন্দর সিং-এর স্ত্রী তথা পাতিয়ালার সাংসদ প্রনীত কওর (Preneet Kaur), বারামতীর এনসিপি সাংসদ সুপ্রিয়া সুলে (Supriya Sule), কারুরের কংগ্রেস সাংসদ জোথিমনি (Jothimani), দক্ষিণ চেন্নাইয়ের কংগ্রেস সাংসদ তমিঝাচি থাঙ্গাপান্ডিয়া (Tamizhachi Thangapandia) এবং দুই বাঙালী, বসিরহাট ও যাদবপুরের তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ নুসরত জাহান (Nusrat Jahan) এবং মিমি চক্রবর্তী (Mimi Chakraborty)। শেষের দুইজন আবার অভিনেত্রীও বটে। 

তবে এই ছবির থেকেও, নেটিজেনদের বিরক্তির কারণ বেশি হয়েছে, ছবিটির সঙ্গে শশী থারুর যে ক্যাপশন দিয়েছেন, সেটি। ছয় মহিলা সাংসদকেই ট্যাগ করে তিনি লেখেন, কে বলেছে, লোকসভা কাজ করার জন্য আকর্ষণীয় জায়গা নয়? আমার ছয় সহ-সাংসদের সঙ্গে এদিন সকালে।' তবে, এই পোস্ট করার প্রায় সঙ্গে সঙ্গে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। মহিলা সহকর্মীদের বাদবাকি সব ছেড়ে শুধুমাত্র সৌন্দর্যকে নিশানা করার জন্য তাঁর নিন্দা করেন নেটিজেনরা। লেখিকা বিদ্যা কৃষ্ণান (Vidya Krishnan) বলেন, 'মহিলারা লোকসভায় আপনার কর্মক্ষেত্রকে 'আকর্ষণীয়' করে তোলার জন্য ঘর সাজাবার সামগ্রী নন। তাঁরা সংসদ সদস্য এবং আপনি তাঁদের অসম্মান করছেন এবং সেক্সিস্ট মন্তব্য করছেন'।

শেষে বাধ্য হয়ে তিনি তাঁর ওই পোস্টের সাফাইও দেন। তিনি বলেন, সেলফির পুরো ঘটনাটিই করা হয়েছিল হাস্যরসের মেজাজে। তিনি আরও দাবি করেন, মহিলা সাংসদরাই এই ছবিটি তোলার উদ্যোগ নিয়েছিলেন। আর হাস্যরসের মেজাজেই মহিলা সাংসদরা ছবিটি তাঁকে টুইটও করতে বলেছিলেন। সেই কারণেই ওই পোস্ট করেছিলেন তিনি। তিনি আরও বলেন, এতে কিছু লোক অসন্তুষ্ট হয়েছেন বলে তিনি দুঃখ প্রকাশ করেন। তবে তিনি নিজে কর্মক্ষেত্রে বন্ধুত্বের এই প্রদর্শনে যোগ দিতে পেরে খুশি হয়েছেন বলেই জানান। 

এর আগেও থারুরের বিরুদ্ধে 'লিঙ্গ নির্দিষ্ট এবং রূপান্তরকামী বিদ্বেষী' মন্তব্য করার জন্য সমালোচিত হয়েছিলেন। সেই সময় দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে (Arvind Kejriwal) তিনি 'নপুংসকদের' সঙ্গে তুলনা করে বলেছিলেন, তাদের মতোই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী কোনও দায়িত্ব না নিয়েই ছাড়াই সমস্ত ক্ষমতা চেয়েছিলেন। পরে তিনি জানান, তিনি আসলে এক ব্রিটিশ রাজনীতিককে উদ্ধৃত করেছিলেন।
 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios