প্রযুক্তি এখন হাতের মুঠোয় চলে আসায় তার যথেচ্ছ অপব্যবহারও করা হয়। এমন নজির প্রায়শই চোখে পড়ে। প্রযুক্তিতে কাজে লাগিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ার অপব্যবহারের ফলে একের পর এক বিপজ্জনক ঘটনা প্রায়শই ঘটে থাকে। তবে এবার সোশ্যাল মিডিয়ার অপব্যবহার রুখতে কেন্দ্রকে নয়া নির্দেশিকা নিয়ে আসার নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। 

এদিন সুপ্রিম কোর্টের তরফে কেন্দ্রকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, তিন সপ্তাহের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ার অপব্যবহার রুখতে নয়া নির্দেশিকা নিয়ে আসতে হবে। এদিন বিচারপতি দীপক গুপ্ত এবং বিচারপতি অনিরুদ্ধ বোস-এর সমন্বয়ে গঠিত একটি বেঞ্চ-এর তরফে এই বিষয়ে চরম উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে। তাঁদের কথায় অনেক সময়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া কোনও পোস্ট-এর সৃষ্টিকর্তা কে বা  কারা তা তৈরি করছেন, তা অনেক সময়ে ধরতে পারা সম্ভব হয় না। যা একটা চিন্তার বিষয়। তাই তাঁদের নির্দেশে সোশ্যাল মিডিয়ার অপব্যবহার রুখতেই আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে নয়া নির্দেশিকা নিয়ে আসার প্রস্তাব দিলেন তাঁরা। 

আদালতের তরফে এও বলা হয়েছে যে, অনলাইনে কোনও অপরাধীর সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিকে খুঁজে বের করার মতো প্রযুক্তি তাদের কাছে নেই। তবে প্রযুক্তির ব্যবহার করে এই ধরণের অপরাধ যখন করা হয়, তখন প্রযুক্তির ব্যবহার করে তা প্রতিরোধের উপায়ও রয়েছে। 

আরও পড়ুন- নাম বদলে ফেলল জইশ জঙ্গি গোষ্ঠী, বড়সড় আত্মঘাতী হামলার জন্য চলছে প্রস্তুতি

আরও পড়ুন- পুজোর আগেই সুখবর, দু-দিনের ব্যাঙ্ক ধর্মঘট আপাতত স্থগিত রাখা হল

আরও পড়ুন- 'হাউডি মোদী'র পর ফের ভোলবদল, ইমরানের সঙ্গে বৈঠকে ফের কাশ্মীর ইস্যুতে মধ্যস্থতার দাবি ট্রাম্পের

আরও পড়ুন- আল-কায়দাকে জঙ্গি প্রশিক্ষণ দিয়েছে পাক সেনা ও আইএসআই, ইমরান খানের বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি

পাশাপাশি একে একটি বৈজ্ঞানিক ইস্যু হিসাবে আখ্যা দিয়ে বেঞ্চ জানিয়েছে, আর এই ক্ষেত্রে সঠিক সিদ্ধান্তে আসার ক্ষমতা শীর্ষ আদালত বা হাইকোর্ট কারওর নেই। আর তাই এই বিষয়টি মোকাবিলায় সরকারকেই এগিয়ে আসতে হবে জানানো হয় বেঞ্চের তরফে।