২৫ তারিখ বড়দিন। কিন্তু বছরের শেষের এই ছুটির মেজাজটা চলে আসে অনেকদিন আগে থেকেই। তাই বড়দিনের দুদিন আগে থেকেই স্কুল ছুটি করার লক্ষ্যে রীতিমতো জেলাশাসকের নাম করে ভুয়ো নোটিশ জারি করেছিল নয়ডার এক সরকারি স্কুলের দুই ছাত্র। তাঁদের গ্রেফতার করল পুলিশ। এরপরই অভিনব উপায়ে তাঁদের মুক্তি চেয়ে আন্দোলন শুরু করল তাদের সহপাঠীরা।  

ঘটনাটি গত সোমবারের। সরকারি স্কুলের ওই দুই ছাত্র মজা করেই জেলা আধিকারিক বিএন সিং-এর নাম করে একটি ভুয়ো নোটিশ ছড়িয়ে দেয় সোশ্য়াল মিডিয়ায়। তাতে বলা হয়, ২৩ ও ২৪ তারিখ নয়ডা ও গ্রেটার নয়ডার সব স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে ছুটি দিতে হবে। মুহূর্তের মধ্যেই সেই নোটিশটি ভাইরাল হয়।

এরপরই আসরে নামেন জেলাশাসক বিএন সিং। নোটিশটি ভুয়ো বলে সাফ জানিয়ে তিনি বলেন, কোনও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ তিনি জারি করেননি। এটি সম্পূর্ণ গুজব বলে পরিষ্কার করে দেন। টুইট করে জানান, এটি একটি ভুয়ো নোটিশ। এরসঙ্গে তিনি এই ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপের নির্দেশও দেন।

সোমবারই ওই দুই নাবালক ছাত্রকে আটক করে জুভেনাইল রিমান্ড হোম-এ পাঠায় পুলিশ। কিন্তু বুধবার বড়দিনের দিন, জেলাশাসকের দফতরের বাইরে এক অদ্ভূত দৃশ্য দেখা গেল। আটক দুই ছাত্রের সহপাঠীরা এদিন জেলাশাসকের কার্যালয়ের বাইরে কান ধরে বসে আর্জি জানালেন তাদের বন্ধুদের মুক্তি দেওয়ার জন্য। সকলেই স্কুল ইউনিফর্ম পরেই এই অভিনব আন্দোলনে অংশ নেয়। তবে এখনও ওই দুই ছাত্রকে মুক্তি দেওয়া হয়নি বলেই জানা গিয়েছে।