সবকিছু ঠিকঠাক আগামী কয়েক বছরের মধ্যে অসংগঠিত ক্ষেত্রে দেশের সবথেকে বড় বেসরকারি নিয়োগকারী হতে চলেছে ফুড ডেলিভারি অ্যাপ সুইগি। সংস্থার সিইও শ্রীহর্ষ ম্যাজেস্টি দাবি করেছেন, আগামী দেড় বছরের মধ্যেই আরও তিন লক্ষ ডেলিভারি এক্সিকিউটিভ নিয়োগ করতে চলেছে তারা। 

সংস্থার সহ প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও শ্রীহর্ষ ম্যাজেস্টি জানিয়েছেন, 'যদি আমাদের পরিকল্পনা অনুযায়ী বৃদ্ধি চলতে থাকে, তাহলে খুব অল্প সময়ের মধ্যেই ভারতীয় সেনা এবং ভারতীয় রেলের পরেই দেশের তৃতীয় বৃহত্তম নিয়োগকারী সংস্থা হয়ে উঠব আমরা।'

আরও পড়ুন- রোবট-এআই খাচ্ছে চাকরি, জোম্যাটো থেকে এক লপতে ছাঁটাই ১০ শতাংশ কর্মী

আরও পড়ুন- অপহরণকাণ্ডে নাম জড়াল জোমাটোর, কুকুর চুরি করে পলাতক ডেলিভারি বয়

এই মুহূর্তে সুইগিতে প্রায় দু' লক্ষ ডেলিভারি পার্টনার রয়েছেন। আরও তিন লক্ষ নিয়োগ হলে সংখ্যাটা গিয়ে দাঁড়াবে পাঁচ লক্ষে। ২০১৮ সালের মার্চ মাসের হিসেব অনুযায়ী, দেশের মধ্যে সবথেকে বড় নিয়োগকারী হল ভারতীয় সেনা। তাদের ক্ষেত্রে সংখ্যাটা সাড়ে বারো লক্ষ। ভারতীয় রেলে চাকরি করেন ১২ লক্ষ মানুষ। ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসের হিসেব অনুযায়ী বেসরকারি সংস্থাগুলির মধ্যে সবথেকে বড় নিয়োগকারী তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা টিসিএসে সাড়ে চার লক্ষ কর্মী রয়েছেন। এই সব সংস্থাই অবশ্য কর্মীদের পূর্ণসময়ের জন্য নিয়োগ করে। সেখানে সুইগিতে যে ধরনের কাজ করতে হয়, তাতে কাজের অনুপাতে আয় নির্ধারিত হয় ডেলিভারি বয়দের। 

ডেলিভারি বয় হিসেবে সুইগিতে এই মুহূর্তে প্রায় দু' লক্ষ দশ হাজার কর্মী রয়েছেন। আর সংস্থার পে রোলে রয়েছেন আট হাজার কর্মী। কোনও ডেলিভারি বয় মাসে একবার লগ- ইন করলেই তাঁকে সক্রিয় কর্মী হিসেবে ধরে নেয় সুইগি।