প্রতি বছরই গণেশ চতুর্থী উপলক্ষ্যে দেশজুড়ে দেখা দেয় সাজো সাজো রব। প্রতি বছরের মতো এবারেও সারা দেশ জুড়ে সাড়ম্বরে পালিত হচ্ছে গণেশ চতুর্থী। কোথাও বিশালাকার থিম পুজো, আবার কোথাও সাদা-মাটাভাবে হলেও ভক্তিভরেই চলছে গণেশ বন্দনা। 

আর এই গণেশ চতুর্থী উপলক্ষ্যেই হায়দরাবাদে তৈরি হল দেশের সবচেয়ে দীর্ঘ গণেশ মূর্তি। হায়দরাবাদের খইরতাবাদ-এ  প্রায় ৬১ ফুট লম্বা গণেশ মূর্তি তৈরি করা হচ্ছে। যা এখনও পর্যন্ত উচ্চতার নিরিখে দেশের সবচেয়ে বড় গনেশ মূর্তি। 

সোমবার থেকেই কনস্যুলার অ্যাকসেস পাবেন কুলভূষণ, জানিয়ে দিল পাক বিদেশ মন্ত্রক

ব্যাঙ্ক সংযুক্তিকরণের ফলে কেউ চাকরি হারাবেন না, সাফ জানালেন নির্মলা সীতারমণ

গাড়ি শিল্পকে বাঁচাতে নতুন পদক্ষেপ কেন্দ্রের, কমানো হতে পারে জিএসটি

এই পুজো কমিটির প্রতিষ্ঠাতা এবং সভাপতি সিঙ্গারি সুদর্শন মুদিরাজ সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাতকারে জানিয়েছেন তাঁরা সিদ্ধিদাতা গণেশকে  দ্বাদশী আদিত্য মহা গণপতি অবতারে পুজো করছেন। মনে করা হয় সিদ্ধিদাতার এই অবতার জলবায়ুর ওপর আশীর্বাদস্বরূপ এবং পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাত ঘটাতেও সাহায্য করবে। 

শুধু তাই নয় সুউচ্চ এই মূর্তির ১২টি মাথা ও ২৪টি হাত রয়েছে। ২৪ টি হাতে বিভিন্ন অস্ত্র ধারণ করে রয়েছেন তিনি। আর তিনি বিরাজ করছেন সাতটি ঘোড়ার ওপর।সারা দেশের বিভিন্ন রাজ্যের দেড় একশোরও বেশি শিল্পী এই সুবিসাল মূর্তি গড়ার কাজে হাত লাগিয়েছেন। তিনি আশাবাদী এবারের গণেশ চতুর্থী উপলক্ষ্যে তাঁদের গণেশ ঠাকুর দেখতে চার থেকে পাঁচ লক্ষ দর্শনার্থীর আগমণ ঘটবে।