বুধবার সংসদে করোনাভাইরাস নিয়ে আলোচনা হয়। আর সেই আলোচনার সময়ই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নিশানা করেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ওব্রায়ন। পিএম কেয়ার্স ফান্ড তিনি রীতিমত নিশানা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। ডেরেক পিএস কেয়ার ফান্ডকে কটাক্ষ করে পিএম ক্যান কেয়ারলেস ফান্ড বলেন। 

এদিন সংসদে  লকডাউন থেকে পিএম কেয়ারস ফান্ড সমস্ত বিষয়গুলি নিয়েই কেন্দ্রের তীব্র সমালোচনা করেন ডেরেক ওব্রায়ন। তিনি হলে মাত্র চার ঘণ্টার মধ্যে কোনও রকম পূর্ব প্রস্তুতি ছাড়াই কী করে ২১ দিনের জন্য লকডাউনের মত বড় সিদ্ধান্ত ঘোষণায় করা হয়েছিল। তাঁর কথায় কোনও আচমকা লকডাউনের কারণে রীতিমত সম্যায় পড়েছিলেন বহু মানুষ।  তাঁর  অভিযোগ ছিল মহামারির প্রাদুর্ভাবের বিষয় কেন্দ্র রাজ্যসরকারগুলিকে তেমন কোনও সূচনা দেয়নি। পাশাপাশি রাজ্যগুলির ওপর তেমনভাবে আস্থাও রাখেনি কেন্দ্র। মহামারি কালে রাজ্যগুলির সঙ্গে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার প্রয়োজন রয়েছে বলেও দাবি করেছেন তিনি। 

বছরে তৈরি হয়ে করোনা প্রতিষেধকের ২০০ কোটি ডোজ, মার্কিন সংস্থার সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধল সেরাম

১০০-২০০ রাউন্ড গুলি চলেছিল প্যাংগং-এ, ভারতকে পোস্ট তৈরিতে বাধা লাল ফৌজের 

৯ বছর অরুণাচলের সুমডোরং দখল করে রেখেছিল ড্রাগনরা, চোখ রাখুন সেই ভয়ঙ্কর অতীতে

তারপরই ডেরেক ওব্রায়ন নিশানা করেন পিএম কেয়ারস ফান্ডকে। তিনি বলেন, এটি বিশ্বের সবথেকে অস্বচ্ছ তহবিল। তারপরই তিনি বলেন এটি প্রধানমন্ত্রী ক্যান কেয়াললেস ফান্ড। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উদ্যোগে গত মার্চ মাসে করনোভাইরাসের মত সংক্রমণের সঙ্গে লড়াই করার জন্য একটি তহলিব তৈরি হয়েছিল। এই তহবিলে প্রথম টাকাও দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সূচনাকাল থেকে  বিরোধীরা বারবার সেই এই তহবিল নিয়ে অভিযোগ তুলে সরব হয়েছে। প্রশ্ন তুলেছে এর স্বচ্ছতা নিয়ে। কারণ এই তহবিল অডিট করা হবে না। গতকালও তৃণমূল সাংসদ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী হর্ষ বর্ধনের দেওয়া বিবৃতির তীব্র সমালোচনা করেছিলেন। যেখানে প্রধানপ্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সাফল্য পাওয়া গেছে বলেও দাবি করেছিলেন হর্ষ বর্ধন।