দলের ক্ষয় নিয়ে এবার মুখ খুললেন বর্ষিয়ান কংগ্রেস নেতা গুলাম নবি আদাজ। তিনি বলেন ভোটে জিততে হতে শুধুমাত্র নেতৃত্বের ঘাড়ে দায় চাপিয়ে লাভ নেই। নেতৃত্বের পাশাপাশি দলের কাঠামোরও সংস্করণের প্রয়োজন। সংবাদ সংস্থা এনএনআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন নেতা থেকে দলের সাধারণ কর্মী সকলেই নিজের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে হবে। 

গুলামনবি আদাজ বলেন এই মুহূর্তে দলের ভিরতে যেভাবে কাজ করা হচ্ছে তাতে খুব তাড়াতাড়ি পরিবর্তন প্রয়োজন। দলের প্রতিটি স্তরেও পরিবর্তন প্রয়োজন বলেও মনে করেন তিনি। পাশাপাশি তিনি বলেন দলের ভিরতে নির্বচন অত্যান্ত প্রয়োজনীয়। দলের কর্মীদের সুসংহত রাখতে ও তাদের দায়িত্ব বন্টনের জন্যই নির্বাচন প্রয়োজন। তিনি কিছুটা উদ্বেগের সুরেই বলেন দলের কাঠামো ভেঙে পড়েছে। আর তা পুনরুদ্ধারের জন্য নেতা ও কর্মী সমর্থক সকলেই কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করতে হবে। আর দলের কাঠামো নতুন করে তৈরি করার জন্য আভ্যন্তরীত নির্বাচনের প্রয়োজন রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। 

সাম্বা সেক্টরে হদিশ মিলল গোপন সুড়ঙ্গ পথের, তবে কি পাক জঙ্গিদের অনুপ্রবেশ এপথেই ...

জলবায়ুর বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ লড়াইয়ের আহ্বান, জি সামিটে করোনা নিয়ে বার্তা প্রধানমন্ত্রীর ...

গুলামনবি আদাজ দলের তারকা সংস্কৃতি নিয়েই উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, সাইকোফ্যান্সি দলের পতনের মূল কারণ। দলের প্রতিটি স্তরের কর্মীদের এজাতীয় সংস্কৃতি থেকে দূরে থাকা প্রয়োজন। তিনি বলেন রাজনীতি তপস্যা। অর্থ উপার্যনের জন্য নয়। কোনও স্টারই ভোটে জেতাতে পারে না। বিহার ও সদ্যো সমাপ্ত উপনির্বাচনগুলিতে কংগ্রেসের হার প্রসঙ্গেই উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। আর তার সমালোচনা করতে গিয়ে গান্ধীদের ক্লিনচিট দিয়েছেন বর্ষিয়ান কংগ্রেস নেতা। তিনি বলেন মহামারির কারণে গান্ধীদের ছাড় দিচ্ছেন তিনি। কারণ এই পরিস্থিতিতে তাঁরা এরথেকে বেশি কিছু করতে পারত না। তবে গান্ধীদের ছাড় দেওয়ার পাশাপাশি তিনি দলের নির্বাচনের দাবিতেও সরব হন। আজাদের আগে চিদম্বরম ও কপিল সিব্বালও বিহার নির্বাচনে কংগ্রেসের খারাপ ফলাফলের কারণে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের তীব্র সমালোচনা করেন।