মঙ্গলবার রাইসিনা হিলসে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের দেওয়া নৈশভোজ সেরে পালাম বিমান বন্দর থেকে স্ত্রী মেলানিয়াকে নিয়ে দেশের উদ্দেশে রওনা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তাঁর দু'দিনের এই ভারত সফরকে অসাধারণ ও সদর্থক বলে বর্ণনাও করেছেন ট্রাম্প। যদিও ভারতে আসার আগে বাণিজ্য চুক্তি প্রসঙ্গে নিজের অসন্তোষ ব্যক্ত করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তবে বন্ধু মোদীর আতিথেয়তায় তা উধাও। 

মঙ্গলবার হায়দরাবাদ হাউসে দুই রাষ্ট্রপ্রধানের মধ্যে বৈঠক হয়। সেখানেই ভারত -মার্কিন প্রতিরক্ষা সহযোগিতা থেকে বাণিজ্য সহ একাধিক চুক্তি সাক্ষরিত হয়েছে। অদূর ভবিষ্যতে দুই দেশের মধ্যে আরও বড় বাণিজ্য চুক্তি হবে বলেই আশাবাদী ডোনাল্ড ট্রাম্প। 

আরও পড়ুন: বালাকোট অভিযানের জন্যই লোকসভা ভোট শান্তিতে, বর্ষপূর্তিতে দাবি প্রাক্তন বায়ুসেনা প্রধানের

মোদীকে বরাবরই নিজের বন্ধু বলে আখ্যায়িত করে এসেছেন। মোতেরা স্টেডিয়ামে চাওয়ালা বন্ধুর দেশপ্রধান হওয়ার মত ঘটনায় তিনি মুগ্ধ বলেও প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন ট্রাম্প। এদেশে সপরিবারে আসা ট্রাম্পের আতিথেয়তায় কোনও খামতি রাখেননি মোদীও। তাই দুই দিনের সফরের শেষে খোশ মেজাজেই নিজের মুলুকে পারি জমিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। 

আরও পড়ুন: পরিস্থিতি সামলাতে দিল্লিতে অজিত ডোভাল, আক্রান্ত এলাকায় স্থগিত সিবিএসই-র বোর্ড পরীক্ষা

এদিকে রাষ্ট্রসংঘ সহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংগঠনের স্বাতন্ত্র বজায় রাখতে আমেরিকা ও ভারত একসঙ্গে কাজ করবে বলেই মার্কিন বিবৃতিতে জানান হয়েছে। পাশাপাশি রাষ্ট্রসংঘে ভারতের স্থায়ী সদস্য পদ পেতে আমেরিকা সমর্থন জানাবে বলে আশ্বাসবাণী দিয়েছেন ট্রাম্প।