Asianet News Bangla

বিজেপি সাংসদদের প্রশ্নের মুখে ২ ট্যুইটার কর্তা, সংসদীয় কমিটিতে ৯৫ মিনিটের বৈঠক

  • সংসদীয় কমিটিতে ট্যুইটার ইন্ডিয়া 
  • প্রশ্নবানে বিদ্ধ ট্যুইটার কর্তারা 
  • নীতি নিয়ে প্রশ্নট্যুইটারকে 
  • ভারতের আইনকে সম্মান করে বলল ট্যুইটার
Twitter had a 95-minute meeting with the parliamentary standing committee bsm
Author
Kolkata, First Published Jun 18, 2021, 9:50 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

শুক্রবার সন্ধ্যায় সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে বিজেপি সাংসদের প্রশ্নবানে রীতিমত জর্জরিত হল ট্যুইটার ইন্ডিয়ার দুই কর্মকর্তা। তেমনই জানিয়েছে একটি সূত্র। ভারতীয় নাগরিকদের অধিকার রক্ষার ও অনলাইন প্ল্যাটফর্মের অপব্যবহার রোধের বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্যই ট্যুইটারের দুই কর্মকর্তাকে ডেকে পাঠান হয়েছিল। সেই বৈঠক চলে প্রায় ৯৫ মিনিট বা দেড় ঘণ্টা ধরে। কংগ্রেস নেতা শশী থারুরের নেতৃত্বএই তথ্য প্রযুক্তি সংম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠক হয়। সেখানেই ট্যুইটার ইন্ডিয়ার দুই প্রতিনিধি পাবলিক পলিসি ম্যানেজার শাগুফতা কামরান আর আইনজীবী অতসু কাপুর হাজির হয়েছিলেন। 

'নিজের প্রিয়জন' বৈশাখীর নিরাপত্তার আর্জি , কলকাতা পুলিশকে চিঠি শোভন চট্টোপাধ্য়ায়ের ...

ভোট পরবর্তী হিংসা, মামলা থেকে নিজেকে সরিয়ে নিলেন বাঙালি বিচারপতি ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায় ...

সূত্রের খবর ৯৫ মিনিটের বৈঠকে ট্যুইটার কর্তাদের প্রশ্ন করা হয়েছিল সংস্থার পক্ষ থেকে কেন ভারতের জন্য পূর্ণ সময়ের চিফ কমপ্লায়েন্স অফিসার নিযুক্ত করেনি, ট্যুইটারের নীতি কী কারণে সমস্যা ( বিশেষত সাম্প্রদায়িক সমস্যা) তৈরি করতে পারে। সূত্রের খবর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন ভারতের নীতিগুলি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আর সেগুলি তাঁরা অনুসরণ করবেন। একই সঙ্গে ট্যুইটারের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয় ট্যুইটার ভারতীয় আইনকে সম্মান করে। ট্যুইটার ভারতীয় আইনের উর্ধ্বে নয় বলেও জানিয়েছেন কর্মকর্তারা। তবে সংসদীয় কমিটির পক্ষ থেকে জানান হয়েছে, সংস্থাটি তাদের নীতিগত সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে যে  ক্ষমতা দিয়েছে তা লিখিতভাবে জমা দিতে বলা হয়েছে। সূত্রের খবর সংসদীয় কমিটি আগামী  দিনে ফেসবুক ইউটিউব আর গুগুলের কর্মকর্তাদের তলব করা হবে বলেও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

দেবাঙ্গনা, নাতাশা, আসিফদের জামিন বহাল, সুপ্রিম কোর্টেও অস্বস্তিতে দিল্লি পুলিশ ...

ট্যুইটারের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, সংস্থাটি তাদের স্বচ্ছতা, মত প্রকাশের স্বাধীনতা, গোপনীয়তা-এই নীতিগুলির সঙ্গে সামঞ্জস্য় রেখে নাগরিকদের অনলাইন অধিকার সুরক্ষিত করার জন্য প্রস্তুত রয়েছে। জনগণের আলোচনা পরিবেশন ও সুরক্ষিত করার জন্য ভারত সরকারের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে কাজ করা হবে বলেও সংস্থার পক্ষ থেকে জানান হয়েছে। একটি সূত্র বলছেন বেশ কয়েকটি ক্ষেত্র ট্যুইটার কর্মকর্তারা অস্পষ্ট উত্তর দিয়েছেন। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios