নির্ভয়া ধর্ষণ কাণ্ডের আরও এক সাজাপ্রাপ্ত আসামী বিনয় শর্মা-কে রবিবার গভীর রাতে মন্দৌলি থেকে তিহার জেলে স্থানান্তর করা হয়েছে। রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানো প্রাণভিক্ষার দাবি প্রত্যাহার করেছে নির্ভয়া কাণ্ডের সাজাপ্রাপ্ত বিনয়। তবে তিনি দাবি করেছেন প্রাণভিক্ষার আবেদনে তার কোনও স্বাক্ষর নেই। 

আরও পড়ুন- 'ছ' বছরে প্রথম বলতে শুনলাম', সংসদে অভিষেককে খোঁচা দিলেন অমিত শাহ

গত শুক্রবার রাষ্ট্রপতি কোবিন্দ ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কাছে যে প্রাণভিক্ষার আবেদনের চিঠি পাঠানো হয়েছে সেই আবেদন তার অনুমোদন ও স্বাক্ষর ছাড়াই পাঠানো হয়েছিল। এমটাই দাবি করেছেন সাজাপ্রাপ্ত বিনয় শর্মা। সেই সঙ্গে প্রাণভিক্ষার এই আর্জি বাতিলও করতে চেয়েছেন তিনি। প্রসঙ্গত, ২০১২ সালে এই রোমহর্ষক এই ঘটনা কাঁপিয়ে দিয়েছিল গোটা দেশ-কে। এই ঘটনার বাকি তিন সাজাপ্রাপ্ত আসামী অক্ষয় ঠাকুর, মুকেশ সিং ও পবন গুপ্ত নামে আরও তিন আসামী ইতিমধ্যে তিহার জেল হাজতে রয়েছেন।

আরও পড়ুন- বারো ঘণ্টার বিতর্কের পর পাশ নাগরিকত্ব বিল, এবার চ্যালেঞ্জ রাজ্যসভায়

২০১২ সালে দিল্লিতে ঘটা এই মামলায় অক্ষয় ঠাকুর, মুকেশ সিং ও পবন গুপ্ত নামে আরও তিন আসামী ইতিমধ্যে তিহার জেল হাজতে রয়েছে। ২০১২ সালে ১৬ ডিসেম্বর ২২ বছর বয়সী এক প্যারা মেডিকেলের ছাত্রীকে বাড়ি ফেরার সময় নৃশংসভাবে ধর্ষণ করার জন্য ৬ জনকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছিল। এদের মধ্যে একজন নাবালক এবং অপর একজন রাম সিংহ বিচারের সময় তিহার জেলেই আত্মহত্যা করেছিল।