শনিবার ভারতের অ্যাসোসিয়েটেড চেম্বারস অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি বা অ্যাসোচাম-এর চলমান ভার্চুয়াল সম্মেলনে বক্তৃতা দিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছেন তাঁর সরকারের আনা সংস্কারগুলি বিশ্ব প্ল্যাটফর্মে ভারত সম্পর্কে ধারণা বদলে দিয়েছে। আগে সবাই ভাবতেন ভারতে কেন বিনিয়োগ করব, এখন ভাবে কেন করব না? এদিন প্রধানমন্ত্রী 'অ্যাসোচাম এন্টারপ্রাইজ অফ দ্য সেঞ্চুরি অ্যাওয়ার্ড' টাটা গোষ্ঠীর রতন টাটাকে। ভারতের উন্নয়নে টাটা গোষ্ঠীর অবদানের কথাও তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

এদিন প্রধানমন্ত্রী ভারতের প্রবৃদ্ধিতে শিল্পের গুরুত্বের কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, ১৩০ কোটি ভারতীয়দের আশা ও স্বপ্নের কারণেই ভারত সম্পর্কে বিশ্বে এখন দারুণ ইতিবাচকতা মনোভাব গড়ে উঠেছে। তিনি আরও বলেন, এটা পরিকল্পনা এবং তাকে কাজে পরিণত করার সময়। দেশ গঠনে মনোনিবেশ করার সময়। কারণ, আগামী ২৭ বছরে ভারত অনেক বৈশ্বিক বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে।

রতন টাটা সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর যোগ্য নেতৃত্বে টাটা গোষ্ঠী দেশের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছে। রতন টাটা-ও প্রধানমন্ত্রীকে এই পুরষ্কারের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন। সেইসঙ্গে করোনা মহামারির সময়ে মোদীর দৃঢ় নেতৃত্বের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, সকলে যদি প্রধানমন্ত্রীর কথা মেনে চলে, তবে বিশ্ব ভারতের দিকে তাকিয়ে বলতে পারবে, প্রধানমন্ত্রী যা বলেছিলেন তা করে দেখিয়েছেন।

ভারতের অন্যতম শীর্ষ বাণিজ্য সংস্থা অ্যাসোচাম আয়োজিত এই কর্মসূচি শুরু হয়েছে চলতি সপ্তাহের মঙ্গলবার থেকে। সপ্তাহব্যাপী এই কর্মসূচিতে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মালা সীতারমণ, কেন্দ্রীয় বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রী পীযূষ গয়াল, কেন্দ্রীয় কৃষি ও কৃষি কল্যাণ মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর, কেন্দ্রীয় সড়ক, পরিবহন ও মহাসড়ক মন্ত্রী নিতিন গড়করী, কেন্দ্রীয় যোগাযোগ ও তথ্যমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ-সহ বিভিন্ন বিশিষ্ট বক্তারা বক্তব্য রাখছেন। ১৯২০ সালে ভারতের সমস্ত অঞ্চল থেকে ৪০০ টিরও বেশি বাণিজ্য গোষ্ঠী এবং বাণিজ্য সমিতি-কে নিয়ে গঠিত হয়েছিল অ্যাসোচাম। বর্তমানে সারা ভারতে এই সংস্থার প্রায় ৪,৫০,০০০ এরও বেশি সদস্য রয়েছে।