Asianet News BanglaAsianet News Bangla

BJP: 'হাত কেটে চোখ উপড়ে নেব', জনসভা থেকেই হুমকি বিজেপি সাংসদের

 বিজেপি সাংসদের এই মন্তব্য নিয়ে রীতিমত উত্তাল হরিয়ানার রাজনীতি। কিছুটা আঁচ পড়েছে জাতীয় রাজনীতিতেও। তবে এখানেই তাঁর বিতর্কিত বক্তব্য শেষ করেননি হরিয়ানার সাংসদ।

will takes eyes chopped hands bjp mp warns after party leader surrounded in Haryana bsm
Author
Kolkata, First Published Nov 6, 2021, 8:30 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

কংগ্রেসকে (Congress) রীতিমত সুর চড়িয়ে হুমকি দিল বিজেপি। 'হাত কেটে নেব, চোখ উপড়ে ফেলব'- এমনটাই হুমকি দিলেন হরিয়ানার বিজেপির (BJP) সাংসদ আরবিন্দ শর্মা(Arabing Sharma)। একটি জনসভায় দাঁড়িয় সাংসদ অরবিন্দ শর্মা  মাইক হাতে দলীয় কর্মী ও অনুগামীদের সামনে বললেন, 'কংগ্রেস ও দীপেন্দ্র হুডা শুনে রাখ, কেউ যদি বিজেপি নেতা মণীশ গ্রোভারের দিকে তাকাও তাহলে ফল ভালো হবে না। মণীশ গ্রোভারের দিকে তাকালে চোখ উপড়ে নেব। যদি গায় হাত পড়ে তাহলে হাত কেটে নেব।' সাংসদের এই বক্তব্যে রীতিমত উন্মত্ত হয়ে ওঠে সভায় উপস্থিত বিজেপি নেতা কর্মীরা। 

তবে বিজেপি সাংসদের এই মন্তব্য নিয়ে রীতিমত উত্তাল হরিয়ানার রাজনীতি। কিছুটা আঁচ পড়েছে জাতীয় রাজনীতিতেও। তবে এখানেই তাঁর বিতর্কিত বক্তব্য শেষ করেননি হরিয়ানার সাংসদ। অরবিন্দ শর্মা রীতিমত ভবিষ্যৎবাণী করেছেন। বলেছেন আগামী ২৫ বছর রাজ্যের ক্ষমতায় খাতবে বিজেপি। কংগ্রেস কিছুই করতে পারবেন না। ২০১৯ সালে হরিয়ানার দুষ্যন্ত চৌতালার সঙ্গে জোট বেঁধে রাজ্যের ক্ষমতা দখল করেছিল বিজেপি।  আগামী বছর নির্বাচন। সেই উপলক্ষ্যে প্রত্যেকটি রাজনৈতিক শিবিরই নিজেরে ক্ষেত্র তৈরি করতে শুরু করেছে। শুনে নিন কী বলেছেন বিজেপি নেতা।

Tripura Violence: সাম্প্রদায়িক হিংসা রুখতে পদক্ষেপ, ৬৮ জনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থার নেওয়ার আর্জি টুইটারকে

Birbhum: চোরা-বালির ব্যবসা, মাঠ দখল করে লক্ষ লক্ষ টাকা মুনাফা ঠিকাদারের

LPG Price Hike: 'মোদীজির উন্নয়নের গাড়ি উল্টোদিকে চলছে', রান্নার গ্যাসের দাম নিয়ে খোঁচা রাহুলের

গতকাল অর্থাৎ শুক্রবার বিজেপি নেতা তথা রাজ্যের মন্ত্রী মণীষ গ্রোভারকে বেশ হরিয়ানার আন্দোলনকারী কৃষকরা ঘেরাও করে রেখেছিল। আগে মণীষ গ্রোফতার  কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের পাশ করা তিনটি কৃষি আইনের সমর্থণে গলা ফাটিয়ে ছিলেন। পাশাপাশি তিনি বলেছেন, কৃষি আইনের বিরুদ্ধে যারা আন্দোলন করছে তারা কর্মহীন আর মদ্যপ। তারপরই বিজেপি নেতাকে রোহতকের কিলাই গ্রামের একটি মন্দিরে আটক করে রাখে প্রতিবাদী কৃষকরা। আধঘণ্টা পরে তাঁকে মুক্তি দেওয়া হয়।

 যদিও আন্দোলনকারী কৃষকদের দাবি  মণীশ গ্রোভারকে ক্ষমতা চাইতে হবে। কিন্তু তিনি তাতে রাজি হননি। পাল্টা তিনি বলেছেন মন্দিরে তাঁর যখন ইচ্ছে হবে তখন তিনি আসবেন। কেউ তাঁকে আটকাতে পারবে না। এই ঘটনার পরই এদিন হরিয়ানার সংসাদ রীতিমত হুমকি দেন কংগ্রেস ও স্থানীয় কংগ্রেস নেতা দীপেন্দ্র হুডাকে। তিনি হাত কেটে চোখ উপড়ে নেওয়ার হুমকি পর্যন্ত দিয়েছেন। তবে আন্দোলনকারী কৃষকদের সঙ্গে হরিয়ানার বিজেপি নেতারাদের দূরত্ব ক্রমশই বাড়ছে। যত দিন যাচ্ছে ততই স্পষ্ট হচ্ছে এই দূরত্ব। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios