ভারতের মত মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ দ্রুত ছড়াচ্ছে বাংলাদেশেও। দিনে দিনে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। এবার দেশের রাজধানী ঢাকায় একসঙ্গে করোনা সংক্রমণের শিকার হলেন ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি ফর কৃষ্ণ কনশাসনেস বা ইসকনের ৩৬ জন সদস্য। এরপরেই স্বামীবাগে অবস্থিত ইস্কনের মন্দিরটি লকডাউন করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় প্রশাসন।

ঢাকার স্বামীবাগের এই ইস্কন মন্দিরে পুরোহিত, আধিকারিক, ভক্ত সহ মোট ১০০ জন সদস্য ছিলেন। এদের মধ্যে কয়েকজনেপ সর্দি, কাশি হওয়ার পর সবার করোনা পরীক্ষা করা হয়। তাতেই ৩৬ জনের শরীরে কোভিড ১৯ পজিটিভ পাওয়া যায়। করোনা সংক্রমণ আটকাতে কয়েকদিন হল মন্দিরের দরজা বাইরের লোকেদের জন্য বন্ধ ছিল। তারপরও কীভাবে ইস্কনের সদস্য মারণ ভাইরাসের সংক্রমণের শিকার হলেন তা নিয়ে চিন্তায় পড়েছে প্রশাসন।

সংক্রমণে এবার চিনকে ছাড়িয়ে গেল পুতিনের দেশ, ২ হাজারেরও বেশি করোনা আক্রান্ত সেনাবাহিনীতে

আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়াল ১০ লক্ষ, জার্মানির মত চিনের কাছে ক্ষতিপূরণ দাবির পথে ট্রাম্প

করোনার ভ্যাকসিনের সঙ্গে এবার বাংলার যোগ, অক্সফোর্ডের গবেষক দলের সদস্য কলকাতার মেয়ে

এদিকে মন্দিরের পুরোহিত সহ ৩৬ জন করোনা আক্রান্তকে আইসোলেশনে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাঁদের চিকিৎসাও শুরু হয়েছে। বর্তমানে ভারতের প্রতিবেশী বাংলাদেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬,৪৬২। কোভিড ১৯ রোগে মৃত্যু হয়েছে ১৫৫ জনের। 

করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় ভারতে চলছে লকডাউন। এই পরিস্থিতিতে এদেশের নানা প্রান্তে আটকে রয়েছেন প্রায় আড়াই হাজার বাংলাদেশি নাগরিক। এদের মধ্যে মে মাসের শুরুতেই এক হাজার বাংলাদেশি নাগরিককে ৬টি বিশেষ ফ্লাইটে করে ফেরানো হবে বলে জানান হয়েছে দিল্লিতে  বাংলাদেশের হাইকমিশনারের দফতর থেকে। পয়লা মে কলকাতা, ২ মে দিল্লি এবং ৩ মে মুম্বই থেকে বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিশেষ বিমানে তাঁদের ঢাকা ফেরানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।