কেমন আছেন উত্তর কোরিয়ার প্রধান কিম জং উন। শুধু উত্তর কোরিয়া নয় গোটা বিশ্বের কাছে এখন সেটাই লাখ টাকার প্রশ্ন। কারণ দীর্ঘ দিন ধরেই লোকচক্ষুর আড়ালে রয়েছে এই দোর্দণ্ডপ্রতাপ নেতা। একটি সূত্রের খবর কার্ডিওভাসকুলার অস্ত্রোপচার হয়েছিল তাঁর। তারপর থেকেই নাকি রীতিমত সংকটজনক অবস্থা কিম জং উনের। যদিও উত্তর কোরিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রী সেই দাবি উড়িয়ে দিয়েছেন। 

গত ১৫ই এপ্রিল কিম জং উনের দাদু তথা উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রের পথিকৃত কিম ইল সুং-এর জন্মদিন ছিল। এই দিনটি গোটা উত্তর কোরিয়ার কাছেই বিশেষ দিন। রাষ্ট্রীয় ছুটির দিনও। সেই দিনটি পালনের জন্য অন্যবছরের মত এবছরও রাষ্ট্রের উদ্যোগেই বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। কিন্তু সেই বিশেষ অনুষ্ঠানে কিমের অনুপস্থিতি তাঁর স্বাস্থ্য নিয়ে জল্পনা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। গত ১১ই এপ্রিল একটি অনুষ্ঠানেই তাঁকে শেষবারের মত দেখা গিয়েছিল প্রকাশ্যে। মার্কিন গুপ্তচর সংস্থার জোগাড়া করা খবর ও বেশ কয়েকটি বেসরকারি সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী শল্যচিকিৎসার পরই কিমের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। বর্তমানে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানেই রয়েছেন তিনি

আরও পড়ুনঃ আশা জাগিয়ে সিডনিতে খুলল সমুদ্র সৈকত, অ্যাডিলেইডের রাজপথে খেলায় ব্যস্ত ক্যাঙ্গারু ...

আরও পড়ুনঃ পুলিশ সেজে বন্দুকবাজের হামলায় রক্তাক্ত কানাডা, রাতভর গুলির লড়াইয়ে মৃত ১৬ .

আরও পড়ুনঃ থেমে গেল টম আর জেরির খুনসুটির এক স্রষ্টার জীবন, নিঃশব্দে চলে গেলেন জন ডিচ ...


উত্তর কোরিয়া প্রশাসন বরাবরই কিম জং উনের বিষয়ে রীতিমত গোপনীয়তা অবলম্বন করে চলে। এক্ষেত্রেই বিশেষ পরিবর্তন হয়নি। তবে কিমকে নিয়ে কিছু অনুমান না করাই ভালো বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। কারণ এক আগে ২০১৪ সালেই প্রায় এক মাস অন্তরালে থেকে নিজের স্বাস্থ্য নিয়ে রাষ্ট্রের পাশাপাশি গোটা বিশ্ব জুড়েই জল্পনা বাড়াতে দিয়েছিলেন তিনি। পরে প্রকাশ্যে এসে কিম জানিয়েছিলেন তাঁর হাঁটুর সমস্যার জন্যই তিনি বিশ্রামে ছিলেন।