করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ক্রমশই বাড়ছে বিশ্বে। চলতি বছর প্রথম থেকেই এই করোনা মহামারির বিরুদ্ধে লড়াই করতে শুরু করেছিল বিশ্ব। ১০ মাস পরেও তা অব্যাহত রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে গোটা বিশ্বেই প্রতিষেধকের অপেক্ষায় রয়েছে। বেশ কয়েকটি প্রতিষেধক একের পর এক ট্রায়াল রান সম্পন্ন করেছে। বিশেষজ্ঞদের মতে সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী বছর গোড়ার দিকে প্রতিষেধক হাতে পাওয়া যাবে বলেই দাবি করছে বিশেষজ্ঞরা। আর ঠিক এক সময়ই বিশ্ববাসীকে সচেতন করলেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রোস  অ্যাধনান ঘেব্রেইয়েসাস।  একটি অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের প্রতিষেধককে যদি জাতীয়তাবাদের কবলে ফেলা হয় তাহলে বাধা পাবে মহামারির বিরুদ্ধে লড়াই। আর সেক্ষত্রে মহামারির আয়ু আরও দীর্ঘ হবে। 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান আরও বলেন, প্রত্যেক সরকারই প্রথমে নিজের দেশের মানুষের স্বাস্থ্য রক্ষা করবে। এটা  খুবই স্বাভাবিক। কিন্তু মহামারির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ লড়াই করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। বার্লিনে তিন দিনের জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সম্মেলনেক উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, যখন আমাদের হাতে একটা কার্যকর টিকা আসবে তখন সেটি কার্যকরভাবে ব্যবহার করতে হবে।  আর সেটা করার সর্বোত্তোম উপায় হল কিছু দেশের সমস্ত মানুষকে এক সঙ্গে টিকা প্রদান না করে সমস্ত দেশের কিছু কিছু লোককে টিকা প্রদান করা। তিনি আরও বলেন এই প্রক্রিয়া গ্রহণ করলে মহামারি আয়ু কমবে। কিন্তু প্রতিষেধককে যদি জাতীয়তাবাদের ছাতার তলায় আনা হয় তাহলে মহামারি আরও দীর্ঘায়িত হবে। 

ভোট প্রচারে আবারও হাতিয়ার করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক, এবার কী প্রতিশ্রুতি দিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী .

দশেরার বার্তাতে তরজার সুর, মোদী-সনিয়া নাম না করেই একে অপরকে নিশান করলেন .
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান আরও বলেন, করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে জয় পাওয়ার  একমাত্র রাস্তা হল ঐক্যবদ্ধ হয়ে লড়াই করা। দরিদ্র দেশগুলিরও করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক পাওয়ার অধিকার রয়েছে। আর তা সুষ্ঠুভাবে প্রদান করার ওপরেও তিনি জোর দিয়েছেন।একই সঙ্গে তিনি বলেছেন উত্তর গোলার্ধে বেশ কয়েকটি দেশে সংক্রমণ আবারও বাড়ছে। সংশ্লিষ্টদেশগুলিকে সতর্ক করেছে তিনি। পাশাপাশি বলেছেন প্রতিষেধক যদি বিশ্বব্যাপী হয় তাহলে ভালো হয়।  কিন্তু বর্তমানে বিশ্ব অত্যান্ত খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে বলেও মনে করেন তিনি। আর সেই কারণে মহামারির বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য বিশ্বের প্রতিটি দেশের কাছে ঐক্যবদ্ধ হয়ে পদক্ষেপ করার আহ্বান জানিয়েছেন।