সমপ্রেম নিয়ে ছুঁৎমার্গ কাটিয়ে উঠল উপত্যকা ঘেরা প্রতিেবশি দেশ ভুটান। এতদিন পর্যন্ত সেদেশেও সমপ্রেমকে অপরাধ হিসাবেই গ্য করা হত। কিন্তু এবার সমকাম নিয়ে সংকীর্ণ মনস্কতার বেড়াজাল ভেঙে সমপ্রেমকে স্বীকৃতি দ্তে চলেছে ভুটান। 

২০০৪ সালে ভুটানের ক্রিমিনাল কোডের দুটি সেকশনে সমপ্রেমকে অপরাধ হিসাবে বর্ণনা করা হয়েছিল। সমপ্রেমী কোনও যুগল ধরা পড়তে সেই ধারা অনুযায়ী তার শাস্তিও হত। দক্ষিণ এশিয়ার ছোট্ট দেশ ভুটানে সমপ্রেমকে স্বীকৃতি দেওয়া নিয়ে আন্দোলন চলছিল বেশকিছু সময় যাবৎ। সম্প্রতি একটি গ্লোবাল রাইট গ্রুপের পক্ষ থেকে এই আন্দোলনকে সাদরে গ্রহণ করা হয়েছে। এবার ভুটানের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে এই বিষয়ে একটি প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে। মনে করা হচ্ছে, খুব শীঘ্রই পার্লামেন্টে একটি আইন প্রণয়ন করা হবে যেখানে সমপ্রেমকে আর অপরাধ বলে গণ্য করা হবে না। এই ধারা যাতে বাতিল করা হয়, তার পক্ষেই মত দিয়েছে পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ।

২০৫০-এই কী মানব সভ্যতার শেষ, কী বলছে গবেষণা

পাকিস্তানে যৌন লালসার শিকার এক হিন্দু কিশোরী

হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থিত ছোট্ট এই দেশে এলজিবিটি সম্প্রদায়ের একটি দল রয়েছে, যার নাম 'রেইনবো ভুটান'। এই সংগঠনের হয়ে তাসি সিতেন জানিয়েছেন যে বহুদিনের চোখের জলের বিনিময়ে আজ এই সাফল্যের মুখ দেখল তাঁরা। তাসি আরও জানান যে, সেদেশে তাঁরা সংখ্যায় খুবই কম। সংখ্যালঘু এই সম্প্রদায়ের কথা যখন পার্লামেন্টের পক্ষ থেকে ভেবে দেখা হয়েছে, সেজন্য তাঁরা খুবই খুশি। জানা গিয়েছে সোমবার পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষের সদস্যদের ভোটদানের পরই এই বিষয়ে রায় মিলবে।