'যে কোনও পদক্ষেপ নিতে পারে ভারত', ভয় পেয়ে মন্তব্য পাক বিদেশমন্ত্রীর

চাপে পড়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি। অর্থনৈতিকভাবে দেওয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া পাকিস্তানের দাবি, ভারতের অর্থনৈতিক ব্যবস্থা সঙ্কটের মুখে এবং এমতাবস্থায় চাপে পড়ে ভারত ফলস ফ্ল্যাগ অপারেশন করতে পারে। 

ভারতের সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের ট্রমা থেকে এখনও বেরিয়ে আসতে পারেনি পাকিস্তান। উড়েছে রাতের ঘুম। আর তাই ফের একবার পাক বিদেশমন্ত্রীর কপালে চিন্তার ভাঁজ। আর এই আশঙ্কা যে পাকিস্তানের মনে এখনও রয়েছে গিয়েছে তা ফের একবার প্রমাণিত হল, কুরেশির কথায়। একাধিক সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, এক বিবৃতিতে কুরেশি জানিয়েছেন, ভারতের অর্থব্যবস্থার গ্রাফ ক্রমশ নিম্নমুখী। তাই ভারত চাপে রয়েছে এবং এই চাপে পড়ে ভারত ফলস ফ্ল্যাগ অপারেশন করতে পারে বলে তাঁর আশঙ্কা। 

কুরেশির মতে, মার্কিন টম ল্যানটস হিউম্যান রাইটস কমিশন কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে চিন্তাপ্রকাশ করে মার্কিন বিদেশমন্ত্রকের কাছে আবেদন জানিয়েছে যাতে তারা ভারতের সঙ্গে যোগাযোগ করে। কুরেশি দাবি অনুযায়ী, অযোধ্যা মামলায় ভারতের সুপ্রিম কোর্টের রায় নিয়ে কমিশন জানায়, ভারতে হিন্দু চরমপন্থী মনোভাব বেড়ে চলেছে। 

কুরেশি বলেন, কাশ্মীর নিয়ে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে চাপে পড়ে বিজেপি শাসিত ভারত সরকার মনোবৈজ্ঞানিক চাপে রয়েছে। ভারতের অর্থনৈতিক গ্রাফও ক্রমশ নিচের দিকে নাবছে বলে মনে করেন কুরেশি। আর তাই ভারত ফলস ফ্ল্যাগ অপারেশনের মতো কোনও একটা পদক্ষেপ নিতে পারে বলে আশঙ্কা তাঁর।