করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেন সন্ধান পাওয়া গেছে ভারতও। ইতিমধ্যেই ৬ জন বিলেত ফেরতের শরীরের করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেনের লন্ধান পাওয়া হয়েছে। প্রত্যেককেই বিচ্ছিন্ন করে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে বলেই জানিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রক। এই অবস্থায় প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে করোনাভাইরাসের বিকাশ করা টিকা কতটা কার্যকর হবে নতুন স্ট্রেনের বিরুদ্ধে? বেশ কয়েকজন বিশেষজ্ঞ মনে করছেন করোনা সংক্রমণ রুখতে টিকা তৈরি হয়েছে তাই নতুন স্ট্রেনের মাধ্যমে সংক্রমণ রুখে দিয়ে কার্যকরী। 
 

মার্কিন সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ অ্যান্টনি ফাউলি বলেছেন ব্রিটেন থেকে আসা তথ্যগুলি বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, ভ্যাক্সিনগুলি এখনও পর্যন্ত ভাইরাস আটকাতে সক্ষম। তবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিষয়নি নিয়ে নিশ্চিত হওয়ার জন্য পরীক্ষা করবে। বিশেষজ্ঞদের কথায় যেকোনও জীবাণু তার চরিত্র বদল করে। এটা কোনও নতুন বিষয় নয়। তবে কোনও ভাইরাস যদি উল্লেখযোগ্য পরিমাণে নিজের চরিত্র বদল করে সেটাই উদ্বেগের। করোনাভাইরাসের ক্ষেত্রে এই জিনিসটি ঘটে কিনা সেটাই এখন পর্যবেক্ষণ করার বিষয়। 

'প্রভুর আদেশই শিরোধার্য', রাজনৈতিক দল গঠন করবেন না বলে ঘোষণা রজনীকান্তের ..

প্রধানমন্ত্রীর রাজ্যে 'রাগ' করে দল ছাড়লেন বিজেপি নেতা, হুমকি ইস্তফা দবেন সাংসদ পদ থেকেও .

মার্কিন প্রশাসনের করোনভাইরাসের টিকা দেওয়ার জন্য প্রধান বিজ্ঞান উপদেষ্টা মনসেকা স্লাওই জানিয়েছেন এটি নতুন কোনও সমস্যা করবে না বলেই তিনি আশাবাদী। বিশেষজ্ঞদের কথায় নতুন এই প্রতিষেধক আগের তুলনায় ৭০ শতাংশ বেশি সংক্রামক। করোনাভাইরাসের নতুন এই স্ট্রেনের কারণে ব্রিটেনসহ বেশ কয়েকদেশ দেশে ইতিমধ্যেই উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। ব্রিটেনের সঙ্গে উড়ান যোগাযোগ ছিন্ন করেছে বিশ্বের প্রায় সবকটি দেশ। কিন্তু তারপরেই ভারতসহ বেশ কয়েকটি দেশে নতুন স্ট্রেনের সন্ধান পাওয়া গেছে। যা নিয়ে কিছুটা হলেও নতুন করে উদ্বেগ বাড়ছে।