আবারও আইফোনে চার্জ দিতে গিয়ে মত্যু হল। এবার মৃত্যু হল এক রাশিয়ান মহিলার। এবারও চার্জ দেওয়ার সময় বৈদ্যুতিন ডিভাইসটি জলের সংস্পর্শে আসে। তাতেই তড়িদাহত হয়ে মৃত্যু হয়। ২৪ বছরের ওলেসিয়া সেমোনোভা তাঁর প্রিয় আইফোনটি চার্জ দিচ্ছিলেন। আর সেই সময়ই সেটি পড়ে যায় বাথটাবের জল। আর বাথটাবের মধ্যেই তড়িদাহত হয়ে মৃত্যু হয় তাঁর। রাশিয়ার আরখানগেলস্কের বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় মহিলার দেহ। 

স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে, মৃতার বন্ধু দারিয়া শুনে ছিল তাঁর শেষ সময়ের চিৎকার। তারপরই কাঁপতে শুরু করেন ওলেসিয়া। তাঁকে বাঁচানোর চেষ্টা করার আগেই সব শেষ হয়ে যায়। দারিয়ার কথা  একসময় ওলেসিয়ার হৃদস্পন্দন থেমে যায়। দারিয়া জানিয়েছে সে সত্যি খুব ভয়ে পেয়েগিয়েছিল চোখের সামনে তাঁর বন্ধুর মর্মান্তিক মৃত্যু দেখে। দারিয়াই পুলিশকে দেখিয়ে দিয়েছিল বাথটাবের জলের মধ্যে পড়েছিল স্মার্টফোনটি। দারিয়া জানিয়েছেন ওলেসিয়া স্থানীয় একটি কাপড়ের দোকানের কর্মী ছিলেন। খুব শখ করে কিনেছিল আইফোন। 

ভারতীয়দের ব্যবসা বাড়িয়ে দিয়ে উদ্যোগী ওয়ালমার্ট, জানিয়ে দিল একটি বড় খবর ...

নাতি কোলে ভাইলার হলেন দাদু, খুশিতে ভরে গেল মুকেশের পরিবার ..

এই ঘটনা সামনে আসার পরই রাশিয়ার জরুরি অবস্থা মন্ত্রক দেশের মানুষকে সতর্ক করেছে। বলা হয়েছে সর্বদাই খেয়াল রাখতে হবে যে বৈদ্যুতিন ডিভাইস কখনই জলের নিকটে নিয়ে যাওয়া ঠিক নয়। কারণ এটি  যদি জলের সংস্পর্শে আসে তাহলে সবথেকে খারপ পরিণতি হল মৃত্যু। এটাই রাশিয়ার প্রথম স্মার্ট ফোন দুর্ঘটনা নয়। এর আগেও একই ধরনের ঘটনা ঘটেছে। মৃত্য়ুর তালিকায় ১৫ বছরের স্কুল পড়ুয়া থেকে শুরু করে রয়েছে ২৬ বছরের এক মহিলাও। বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীও ফ্ল্যাটে হেয়ার ড্রায়ার দিয়ে চুল শুকনো করার সময় বিদ্যুতের শক খেয়ে গুরুতর জখম হয়েছিলেন। রাশিয়ার পোকার প্লেয়ার লিয়াও তড়িদাহত হয়ে মারা গিয়েছিল।