Asianet News BanglaAsianet News Bangla

গজনির পর কান্দাহারে পা তালিবানদের, আফগানিস্তানে ক্রমশই জমি হারাচ্ছেন আশরাফ ঘানি

আফগানিস্তানের দ্বিতীয় বৃহত্তম আর গুরুত্বপূর্ণ শহর কান্দাহারের দখল নিল তালিবানরা। সেনার পাশাপাশি দূতাবাসের কর্মীদেরও সরিয়ে নিচ্ছে আমেরিকা। 

Taliban claim to capture Afghanistan second largest city Kandahar bsm
Author
Kolkata, First Published Aug 13, 2021, 1:18 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

অপ্রতিরদ্ধ হয়ে উঠেছে তালিবানরা। একের পর এক বড় বড় শহরগুলির দখল নিচ্ছে আনায়াসে। গজনির পর এবার আফগানিস্তানের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর কান্দাহারের দখলও তাদের হাতে, তেমনই দাবি করছে তালিবানরা। তালিবানদের একজন মুখপাত্র জানিয়েছে কান্দাহার পুরোপুরে তালিবানদের দখলে এসেছে। মুজাহিদিনরা শহরের শহিদ স্কোয়ারে পৌঁছে গেছে। স্থানীয় এক বাসিন্দারও সংবাদ সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন আফগান সরকার সামরিক ব্যবস্থা প্রত্যাহার করে নিয়েছে। তালিবানদের দাপটে আফগান সেনা পিছিয়ে গেছে। বৃহস্পতিবারই গজনির পতন হয়। আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক তা ঘোষণা করে জানিয়েছে। সেই সময়ই স্থানীয় প্রশাসান জানিয়েছিল কান্দাহার মহাসড়কেরও দখল নিয়েছে তালিবানরা। 

যোগীরাজ্যের পুলিশের অন্যরূপ, আক্রান্ত মুসলমান ব্যক্তির ভিডিও ভাইরাল হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পদক্ষেপ

একটা সময় তালিবানদের গুরুত্বপূর্ণ ঘাঁটি ছিল কান্দাহার। দেশের বাণিজ্যকেন্দ্রগুলির মধ্যেই অন্যতম এই শহর। তাই তালিবানদের কান্দাহার দখল কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ । বৃহস্পতিবার থেকেই গেশের কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ শহর তালিবানদের হাতে চলে গেছে। কিন্তু তারপরে এখনও পর্যন্ত তালিবানরা নিজেদের বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করেনি।

International Lefthanders Day- বাঁহাতি ক্লাবের সেরা দশ সদস্য, তালিকায় মোদী, শচিন-সহ আর কে 

আফগানিস্তান সরকার আর মার্কিন সেনা বাহিনীরে রীতিমত স্তম্ভিত করে মাত্র ৮ দিনের মাথায় গুরুত্বপূর্ণ শহর কান্দাহারের দখল নিয়েছে তালিবানরা। বর্তমান পরিস্থিতিতে দেশের অধিকাংশ এলাকাই তালিবানদের দখলে চলে গেছে। রীতিমত কোনঠাসা হয়ে পড়েছে আশরাফ ঘানির সরকার। আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করে নিচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন ও মিত্র বাহিনীর সেনার সংখ্যা যত কমছে ততই দাপট বাড়ছে তালিবানদের। কিন্তু মার্কিন  প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন দুদশক ধরে চলা যুদ্ধ শেষ করতে তার কোনও আপসোস নেই। ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সমস্ত মার্কিন সেনা প্রত্যাহের সিদ্ধান্তে এখনও পর্যন্ত অটল রয়েছেন তিনি। সেনা সরিয়ে নেওয়ার পাশাপাশি গৃহযুদ্ধে বিধ্বস্ত আফগানিস্তান থেকে  দূতাবাস কর্মীদেরও সরিয়ে নেওয়া হবে। ওয়াশিংটন আর লন্ডন ঘোষণা করেছে আফাগানিস্তান থেকে সমস্ত দূতাবাস কর্মীদেরও সরিয়ে নেওয়া হবে যত দ্রুত সম্ভব। 

রাজ্যসভায় তোলপাড়ের সরকারি রিপোর্ট, নাম রয়েছে সিপিএম,কংগ্রেস, তৃণমূলের

পেন্টাগন জানিয়েছে আগামী ২৪-৪৮ ঘণ্টার জন্য কাবুলে প্রায় ৩ হাজার মার্কিন সেনা মোতায়েন করা হবে। তালিবানদের হাত থেকে মার্কিন দূতাবাসের কর্মীদের সরিয়ে নিতেই এই উদ্যোগ। অন্যদিকে ব্রিটেন প্রশাসন জানিয়েছে দূতাবাসের কর্মীদের নিরাপদে দেশে ফেরাতে সেনা পাঠান হবে। গত এক মাসের মধ্য প্রায় এক ডজনেরও বেশি প্রাদেশিক রাজধানীর দখল নিয়েছে তালিবানরা। তবে এখন পর্যন্ত অক্ষত রয়েছে তালিবান বিরোধী ঘাঁটি মাজার-ই - শরিফ।  

Taliban claim to capture Afghanistan second largest city Kandahar bsm

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios