গল্প মনে হলেও সত্যি, এভাবেই এক লাইনে ব্যাখ্যা করা যায় এই ঘটনাটিকে। আবার শাহিদ-করিনার চুপকে চুপকে ছবিটি যারা দেখেছেন তারাও কিছুটা আইডিয়া করতে পারবেন। বলা যায় অস্ট্রেলিয়ার এই ঘটনা দুঃখজনক হলেও অনেকটা ফিল্মিও। রেস্তোরাঁয় কিভাবে মৃত প্রাক্তন প্রেমিকের সঙ্গে দেখা হল, আর তারপরেই বা কি ঘটল চলুন এবারে সমগ্র বিষয়ে চোখ রাখা যাক। 

অস্ট্রেলিয়ার বাসিন্দা ব়্যাচেল। ১৮ বছর বয়সে তার দেখা হয় বছর একুশের এক শ্যেফের সঙ্গে। খুব কম সময়ের মধ্যেই ঘনিষ্ঠ হয়ে ওঠে তারা। সম্পর্কের কয়েক মাসের মধ্যেই হাত ভেঙে গিয়েছে এবং তার চিকিৎসার জন্য টাকা লাগবে বলে ব়্যাচেলের থেকে প্রায় ৭০,০০০টাকা ধার নেয় তার প্রেমিক। এর ঠিক কয়েক মাস পরেই কোনও একটি বিষয় নিয়ে সম্পর্ক ভেঙে যায় তাদের। যদিও সম্পর্ক ভেঙে যাওয়াতে টাকা ফেরৎ দেওয়ার কোনও রকম চেষ্টাই করেনি ব়্যাচেলের প্রাক্তন প্রেমিক।  

আরও পড়ুন-  নতুন ধরনের কৃষ্ণগহ্বরের সন্ধান, কী বলছেন বিজ্ঞানীরা

এরপর ব়্যাচেলের ফোন কল এড়িয়ে যেতে থাকে ওই যুবক। কিছুটা কৌতূহলবশতই ব়্যাচেল ওই যুবকের বিষয়ে খোঁজখবর শুরু করলে সে জানতে পারে, শুধু তার থেকেই নয় এমন অনেকেই আছে যাদের থেকে প্রচুর পরিমাণে টাকা ধার নিয়েছে তার প্রাক্তন প্রেমিক। কিন্তু সে ধরাছোঁয়ার বাইরে। তার কোনও খোঁজই কেউ দিতে পারছে না। হঠাৎই প্রাক্তন প্রেমিকের মা-এর থেকে ব়্যাচেল জানতে পারে যে তার ছেলে এক বাইক ব্যাং-এর থেকে টাকা ধার নিয়েছিল এবং তারাই ওর প্রাণ নিয়েছে। খবর পেয়ে রীতিমতো হতভম্ব হয়ে যায় সে। এর ঠিক দু বছর পরেই ঘটল সেই ঘটনা, যার জন্য শুধু ব়্যাচেল কেন, জগতের কারোর প্রস্তুত থাকার কথা নয়। 

অন্য একটি শহরে একদিন এক বন্ধুর সঙ্গে রেস্তোরাঁয় খেতে যায় ব়্যাচেল। সবই ঠিকঠাক চলছিল, কিন্তু হঠাৎই তাল কাটল। ব়্যাচেলের চোখের সামনে ভেসে উঠল তার মৃত প্রাক্তন প্রেমিকের মুখ। একি হ্যালুসিনেশন নাকি অন্য কিছু। ঘোর কাটল কিছুক্ষণের মধ্যেই। কারণ কোনও ভ্রম ছিল না। সত্যিই ওই রেস্তোরাঁর কিছুটা দূরে তার মৃত প্রাক্তন প্রেমিক তার বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে হাসি-ঠাট্টায় ব্যস্ত ছিল। 

আরও পড়ুন-  বাগদাদি খতম অভিযান-এর রোমহর্ষক ভিডিও, কীভাবে হামলা চালিয়েছে মার্কিন সেনা, দেখুন

সেদিন কিন্তু ব়্যাচেল তার মনে ঝড় তুলে দেওয়া যাবতীয় প্রশ্নের উত্তর জেনে নেওয়ার চেষ্টা করেছিল, কিন্তু তাকে ওই যুবকের কাছে যেতে বাধা দেওয়া হয়েছিল। সেদিনই ব়্যাচেলের সঙ্গে তার প্রাক্তন প্রেমিকের মা যোগাযোগ করে জানায়, রেস্তোরাঁয় সিন ক্রিয়েট হওয়ায় তার ছেলেকে চাকরি থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। কেন তার মা ছেলের ভুয়ো মৃত্যুর খবর বলল, তাহলে কি তার থেকে টাকা নেওয়ার উদ্দেশ্যেই সম্পর্কে জড়িয়েছিল ওই যুবক, এমন কাণ্ড কতজনের সঙ্গে ঘটিয়েছে ওই যুবক, আদৌ কি আর টাকা ফেরত পাবে সবাই, এমনই অনেক প্রশ্নই তাড়া করছে ব়্যাচেলকে...।