বিশ্বের বৃহত্তম আইফোন কারখানায় কর্মী বিক্ষোভ-পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে উত্তাল চিন, 'প্রয়ুক্তিগত ত্রুটির ' কথা মালন সংস্থা

| Nov 24 2022, 12:48 PM IST

New covid cases in china
বিশ্বের বৃহত্তম আইফোন কারখানায় কর্মী বিক্ষোভ-পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে উত্তাল চিন, 'প্রয়ুক্তিগত ত্রুটির ' কথা মালন সংস্থা
Share this Article
  • FB
  • TW
  • Linkdin
  • Email

সংক্ষিপ্ত

বেতন ও কাজের শর্ত নিয়ে চিনে আইনের সবথেকে বড় কারখানায় কর্মী বিক্ষোভ। ভাইরাল হয়েছে বেশ কিছু ভিডিও। ঝেংঝুর বিক্ষোভ উদ্বেগ বাড়াচ্ছে চিনের শিল্প মহলে।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই সংঘর্ষের উত্তাল চিনের মধ্যাঞ্চালীয় শহর ঝেংঝু। এটি বিশ্বের বৃহত্তম আইফোন উৎপাদন কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত। ফক্সকনের ঝেংঝু প্যান্টের কর্মীরা বেতন ও কাজের শর্ত নিয়ে নিরাপত্তাকর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে। সংস্থার পক্ষ থেকে সমস্যার কথা স্বীকার করে নেওয়া হয়েছে। তবে আইফোন কারখারার বাইরের বেশ কিছু ছবি ইতিমধ্যে সোস্যাল মিডিয়ায় ছড়ে পড়েছে। যাতে দেখা যাচ্ছে পিপিই পরে শতাধিক মানুষ জড়়ো হয়েছে। তারা নিরাপত্তা কর্মীদের মারধর করছে- এমন ভিডিও ফুটেজও সামনে এসেছে।

নজিরবিহীন হিংসার ঘটনা ঘটেছে। যার কারণ হিসেবে বলা হয়েছে ফক্সকন দুই মাসের জন্য ২৫ হাডার ইউয়ান ভারচীয় মুদ্রায় ২ লক্ষ ৮৬ হাজার টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে চাকরির বিজ্ঞাপণ দিয়েছিল। যা কোভিড মহামারির কারণে অর্থিক সমস্যায় ধুঁকতে থাকা চিনা যুবকদের কাছে রীতিমত লোভনীয় প্রস্তাব ছিল। পরে অবশ্য সংস্থাটি কর্মীদের বেতনে টাকা অঙ্ক কমিয়ে দেয়। দবলা হয়ে তাদের ২৫ হাজার কম ইউয়ানের কাজ করতে হবেয যা নিয়ে কর্মীরা রীতিমত হিংসাত্মক হয়ে ওঠে। ২৫ হাজার ইউয়ান পেতে গেলে কর্মীদের আরও অতিরিক্ত দুই মাস কাজ করতে হবে। প্রতিবাদ আন্দোলন শুরু করে দেয়। তারপরই সংস্থার কর্মীদের মধ্যে অসন্তোষ শুরু হয়ে যায়। যদিও সংস্থার পক্ষ থেকে 'প্রযুক্তিগত ত্রুটি'র জন্য ইতিমধ্যেই ক্ষমা চাওয়া হয়েছে। সংস্থা জানিয়েছে বেতন নিয়ে বিভ্রান্তির জন্যই এজাতীয় সমস্যা তৈরি হয়েছে।

Subscribe to get breaking news alerts

বুধবার ফক্সকন একটি বিবৃতি জারি করে জানিয়েছে, বিক্ষোভকারীরা বেতন ও প্ল্যান্টের বিষয়ে অভিযোগ করেছে। তবে সংস্থার পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে কোভিড- পজিটিভ কর্মীদের সঙ্গে নিয়োগপ্রাপ্তদের একই সঙ্গে রাখা হয়েছে- এই নিয়ে যে অভিযোগ তোলা হয়েছে তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। যদিও সংস্থার পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে সরকারি নিয়ম নীতি মেনেই আইফোন কারখানায় কাজ করা হচ্ছে। যদিও পাল্টা অভিযোগও রয়েছে। বিক্ষোভকারীরা জানিয়েছেন, কোভিডের কারণে চিনে এখনও কঠোর লকডাউন চলছে। আর সেই কারণে কর্মীদের খাওয়া আর থাকার জন্য বিশেষ বোনাস বা সুবিধে দেওয়ার কথা বলা হয়েছিল সংস্থার পক্ষ থেকে কিন্তু তা মানা হচ্ছে না।

সোশ্যাল মিডিয়ায় কারখানার বিক্ষোভের বেশ কিছু ছবি ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা গেছে মিছিল থেকে বিক্ষোভকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইঁটপাটকেল ছুঁড়ছে। পাল্টা বিক্ষোভ থামাতে পুলিশ লাঠিও চার্জ করেছে।

তবে এজাতীয় অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে আর না ঘটে সেই জন্য সংস্থার পক্ষ থেকে কর্মী ও সরকারের সঙ্গে প্রতিনিয়ত যোগাযোগ করা হচ্ছে। ঝেংঝু থেকেই অ্যাপেলের আইনফোনের ৭০ শতাংশ তৈরি হয়। এই সংস্থা রীতিমত স্থিতিশীল ছিল। কিন্তু কোভিডের কারণে গত মাসে কয়েক হাজার কর্মী কাজ হারিয়েছিল। তারপরই থেকেই এই সংস্থায় সমস্যা দেখা দিতে শুরু করে।

অন্যদিকে তাইওযানের টেক জায়েন্ট বুধবার নতুন নিয়োগ করা কর্মীদের ১০ ইউয়ান প্রস্তাব দিয়েছে। যদি তারা অবিলম্বে পদত্যাগ করে। এই পরিমাণের মধ্যে ৮ হাজারর ইউয়ান প্রদান করা হবে যদি তারা অবিলম্বে কাজ ছেড়ে চলে যায়। বাকি টাকা দেওয়া হবে কাজ ছাড়ার পর। অনেকেই এই প্রস্তাবটি গ্রহণ করেছে। কিন্তু এই ছবি চিনের শিল্প মহলে উদ্বেগ তৈরি করেছে।

আরও পড়ুনঃ

বোন প্রিয়াঙ্কাকে সঙ্গে নিয়ে ভারত জোড়ো যাত্রায় রাহুল গান্ধী, কংগ্রেসের পাল্টা পদযাত্রা বিজেপির

পাঁচ বছরের রেকর্ড ভেঙে শীত নভেম্বরে, কলকাতায় তাপমাত্রার পারদ ক্রমশই নিম্নগামী

কিম জম উনের হাত ধরে মিসাইল দেখছে ১০ বছরের কিশোরী, নাম আর পরিচয় জানলে অবাক হবেন আপনিও