বুধবার রাতে আইপিএল ২০১৯-এর এলিমিনেটর ম্যাচে সানরাইজার্স হায়াবাদের বিরুদ্ধে একেবারে শেষ বলে ২ উইকেটে তুলে নিয়েছে দিল্লি ক্যাপিটাল্স। শেষ পর্যন্ত ক্রিজে থাকতে না পারলেও এই জয়ের প্রধান স্থপতি অবশ্যই ঋষভ পন্থ। ৪৯ রানের ঝোড়ো ইনিংসেই ফিনিশিং লাইন দেখতে পায় ডিসি। আর এই রোমাঞ্চকর জয়ের পরই ভারতের জাতীয় নির্বাচকদের একহাত নিলেন প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক তথা দিল্লি ক্যাপিটাল্স দলের পরামর্শদাতা সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।  

জয়ের পর দাদা খোলাখুলি বলেছেন, পন্থকে হয়তো এখনই ধোনির পরে সেরা বারতীয় উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান বলার সময় আসেনি, কিন্তু এটাও ঠিক সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে ম্যাচে জয় এনে দিয়েছেন পন্থই। তাঁর ইনিংসকে বিস্ময়কর বলেছেন ক্যাপিটাল্স দলের পরামর্শদাতা। জানিয়েছেন এই ম্যাচে পন্থ প্রমাণ করে দিয়েছেন চাপের মুখে মাথা ঠান্ডা রেখে খেলার ক্ষমতা রয়েছে তাঁর।

একই সঙ্গে পন্থকে বিশ্বকাপের দলে না রাখার জন্য বিসিসিআই-এর নির্বাচকদের একহাত নিয়েছেন প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক। তরুণ ভারতীয় উইকেটরক্ষককে বিশ্বকাপের দলে না রাখাটা নির্বাচকদের অত্যন্ত বড় ভুল বলেই মনে করেন দাদা। এর আগে দিল্লি দলের কোচ তথা বিশ্ব ক্রিকেটের আরেক বড় নাম রিকি পন্টিং-ও  একই কথা বলেছিলেন। সৌরভ মনে করেন, বিশ্বকাপে পন্থের পাওয়ার হিটিং মেন ইন ব্লু-র কাজে আসত।

এই ম্য়াচ জিতে ফাইনাল খেলার স্বপ্নের দিকে আরও একধাপ এগিয়ে গিয়েছে দিল্লি ক্যাপিটাল্স। তবে অপেক্ষাকৃত তরুণ ক্যাপিটাল্স দলের কেউই এখন ফাইনাল নিয়ে ভাবছেন না। সৌরভ জানিয়েছেন দলকে তিনি সেরকমই পরামর্শ দিয়েছেন। কারণ মাঝখানে পার করতে হবে মহেন্দ্র সিং ধোনির সিএসকে দলের বাধা। যারা আইপিএল-এর ইতিহাসে সবচেয়ে ধারাবাহিক দল।

সৌরভ মনে করেন, প্লেঅফ পর্যায়ে একটি নির্দিষ্ট দিনে যেই দল বেশি ভালো ক্রিকেট খেলবে তারাই জিতবে। আগে থেকে বলা খুব মুশকিল। তবে একই সঙ্গে সাম্প্রতিক পরিসংখ্যান তুলে তিনি মনে করিয়ে দিয়েছেন, সিএসকে  কিন্তু তাদের শেষ দুই ম্যাচেই পরাজিত হয়েছে। যেখানে দিল্লি তাদের শেষ দুই ম্যাচে জয় পেয়েছে। কাজেই নিজেদের দলকে কিছুটা হলেও এগিয়ে রাখছেন দাদা।