প্রথমে ছিলেন খেলোয়াড়, তারপর মেন্টর, তারপর প্রধান কোচ। এইভাবে তিন ভূমিকায় ৯ বছর ধরে কলকাতা নাইট রাইডার্স দলের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন কিংবদন্তী প্রোটিয়া অলরাউন্ডার জ্য়াক কালিস। রবিবার শাহরুখ খানের ফ্র্যাঞ্চাইজি জানিয়ে দিল পরের মরসুমে আর কালিস কেকেআর-এর দায়িত্বে থাকছেন না। তাঁকে এবং তাঁর সহকারি বিসেবে কাজ করা অস্ট্রেলিয় সাইমন কাটিচ - দুজনকেই বিদায় জানানো হয়েছে।

তবে কেকেআর-এর তরফে এখনই কালিস-কাটিচের পরিবর্ত ঘোষণা করা হয়নি। তবে এই ঘোষণায় পরের মরসুমে সাপোর্ট স্টাফের সঙ্গে সঙ্গে দলেরও খোল-নলচে বদলে ফেলার ইঙ্গিত মিলেছে।

কেকেআর-এর বিবৃতির পর কালিস বলেছেন, ২০১১ থেকে ৯ বছর ধরে কেকেআর-এর খেলোয়াড়, মেন্টর ও প্রধান কোচ হিসেবে কাজ করার পর এবার তিনি অন্য় কিছু করতে চান। কেকেআর-এর মালিক পক্ষ, ম্য়ানেজমেন্ট ও সতীর্থ খেলোয়াড়দের তিনি ধন্যবাদ দিয়েছেন।

২০১১ সালে ক্রিকেটার হিসেবেই নাইট শিবিরে যোগ দিয়েছিলেনকিংবদন্তী অলরাউন্ডার। ২০১২ ও ২০১৪ সালে কেকেআর-এর আইপিএল জয়ে তাঁর বড় ভূমিকা ছিল। ২০১৫ সালে অবসরের পর তাঁকে প্রধান কোচ হিসেবে নিয়োগ করে ফ্র্যাঞ্চাইজি। ওই বছরই প্রাক্তন অজি ক্রিকেটার সাইমন ক্য়াটিচ এসেছিলেন ব্য়াটিং কোচ হয়ে। পরে তাঁকে কালিসের সহকারি করা হয়।

তাঁদের কোচিং-এ কেকেআর ৬১টি ম্যাচ খেলে ৩২টি জিতেছে। পর পর তিনবার প্লেঅফ খেলেছে। চলতি বছরে পঞ্চম হয়েছে।   

কলকাতা নাইটরাইডার্স-এর সহকারি কোচ থেকে সরিয়ে দেওয়া হলেও শাহরুখের ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের দল ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স দলের কোচট হিসেবে কাটিচই বহাল থাকছেন। ২০১৭ ও ২০১৮ সালে তিনি টিকেআরকে সিপিএল চ্য়াম্পিয়ন করেছেন।

কেকেআর সিইও ভেঙ্কি মাইসোর জানিয়েছেন কালিস কেকেআর দলের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ ছিলেন। কোচ হিসেহবে বিদায় নেওয়ার পরও তাঁণর সঙ্গে দলের সম্পর্ক থাকবে। তাঁকে অন্যবাবে ব্যবহার করার ভাবনাও রয়েছে।