কেকেআর, সিএসকে, দিল্লি, সানরাইজার্স একের পর এক দলে করোনার থাবার কারণে মাঝ পথেই আইপিএল বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছে বিসিসিআই। প্লেয়ার, সাপোর্টিং স্টাফ সহ অন্যান্যদের স্বাস্থ্য সংক্রহান্ত কোনওরকম ঝুঁকি নিতে রাজি হয়নি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। আইপিএল বন্ধ হওয়ার পর থেকেই বাকি প্রতিযোগিতা কবে আয়োজন করা যায় তা নিয়ে আলোচনা চলছিল। এবার আইপিএল ২০২১-এর বাকি ম্যাচের ভবিষ্যৎ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করলেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

আইপিএ  বন্ধ হওয়ার পর থেকেই বাকি প্রতিযোগিতার ভবিষ্যৎ নিয়ে শোনা যাচ্ছিল নানা জল্পনা। কেউ বলছিল টি২০ বিশ্বকাপের আগে সেপ্টেম্বরের উইন্ডো আইপিএল করার সম্ভাবনা, আবার কেউ বলছিলেন বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল ও ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজের মাঝে ইংল্যান্ডেই বাকি প্রতিযোগিতা আয়োজনের বিষয়ে। তবে এক সাক্ষাৎকারে এদিন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় সাফ জানিয়ে দিলেন,'ভারতের মাটিতে বা ইংল্যান্ডে আইপিএল আয়োজন করার কোনও সম্ভাবনাই নেই।' আইপিএল-এর বাকি অংশ আয়োজন করার সুযোগ কবে পাব, সেটা এই মুহূর্তে বলা খুব কঠিন বলেও জানিয়ে দেন, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। 

সৌরভ বলেন,'টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল শেষ হবে ২২ জুন। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে কোহলিদের প্রথম টেস্ট শুরু হবে ৪ অগস্ট। মাঝে ভারতের শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার কথা ৩টি ওয়ান ডে ও ৫টি টি-২০ খেলতে। তাছাড়া ১৪ দিন কোয়ারান্টাইনে থাকার মতো বেশ কিছু প্রতিবন্ধকতা থাকছে আইপিএল আয়োজনের ক্ষেত্রে। আইপিএল আর ভারতেও সম্ভব নয়। এই কোয়ারান্টাইনের বিষয়টা নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন। এখনই বলা মুশকিল যে, কীভাবে আইপিএল শেষ করার জন্য স্লট খুঁজে পাওয়া যাবে।' সৌরভের এই মন্তব্যে প্রশ্ন তৈরি হয়েছে যে, ভারতে যদি আইপিএল করা সম্ভব না হয়,তাহলে টি২০ বিশ্বকাপের ভবিষ্যৎ কী হবে। একইসঙ্গে এই বছর আইপিএল করা যাবে কিনা উঠছে সেই প্রশ্নও।