আইপিএলের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে প্রথমে ব্যাট করে ১৬৭ রান করল চেন্নাই সুপার কিং। সিএসকের হয়ে এই ম্যাচে ওয়াটসন, রায়ডু, স্যাম কুরান, ধোনি , জাদেজা সকলেই রান করেন। এদিন টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। চমক দিয়ে এদিন ফাফ ডুপ্লেসির সঙ্গে ওপেন করতে আসেন স্যাম কুরান। কিন্তু শুরুটা ভাল হয়নি সিএসকের। তৃতীয় ওভারেই দলের ১০ রানের মাথায় খাতা না খুলেই আউট হয়ে যান ফাফ ডুপ্লেসি। সন্দীপ শর্মার বলে আউট হন তিনি। অপরদিকে, ওপেনিংয়ে নেমে আক্রমণাত্বক ব্যাট শুরু করেন স্যাম কুরান। ৩টি চার ও ২টি ছয়ের সৌজন্যে ৩১ রান করে আউট হন তিনি। পঞ্চম ওভারে সন্দীপ শর্মার বলেই আউট হন স্যাম কুরান। এরপর ক্রিজে আসেন অম্বাতি রায়ডু। দুজন মিলে এগিয়ে নিয়ে যান সিএসকের ইনিংস।

পাওয়ার প্লের পর উইকেট না হারিয়ে, বেশি ঝুঁকি না নিয়ে পার্টনারশিপ গড়ার চেষ্টা করেন রায়ডু ও ওয়াটসন জুটি। ধীরে ধীরে দলের ইনিংস এগিয়ে নিয়ে যান তারা। প্রয়োজন মত আক্রমণাত্ব শটও খেলেন রায়ডু ও ওয়াটসন। ১০ ওভার পর্যন্ত এভাবেই ইনিংস চলে সিএসকের। ১০ ওভার শেষে ধোনির দলের স্কোর দাঁড়ায় ৬৯ রানে ২ উইকেট। ১০ ওভার পর রানের গতিবেগ বাড়ান দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। বেশ কিছু পাওয়ার হিটও করেন তারা। এর মধ্যে অর্ধশতরানের পার্টনারশিপ পূরণ করেন রায়ডু-ওয়াটসন জুটি। ১৩ ওভার শেষে সিএসকের স্কোর দাঁড়ায় ৯২ রানে ২ উইকেট। ১৪ তম ওভারে চেন্নাই সুপার কিংস দল শতরান পূরণ করে। ১৫ তম ওভারে রাশিদ খানকে দুটি বিশাল ছক্কা হাঁকান ওয়াটশন ও রায়ডু। ওভার শেষে সিএসকের স্কোর দাঁড়ায় ১১৬ রানে ২ উইকেট। 

শেষ ৫ ওভারে রানের গতিবেগ বাড়াতে গিয়ে ১৬ তম ওভারেই আউট হন অম্বাতি রায়ডু। খালিল আহমেদের বলে ৪১ রান করে আউট হন তিনি। ১৬ ওভার শেষে সিএসকের স্কোর হয় ১১৯ রানে ৩ উইকেট। ১৭ তম ওভারে চতুর্থ উইকেট পড়ে সিএসকের। নটরাজনের বলে ৪২ রান করে আউট হন শেন ওয়াটসন। পরপর দুজন সেট ব্যাটসম্যান আউট হওয়ায় চাপ বাড়ে চেন্নাইয়ের উপর। ক্রিজে আসেন রবীন্দ্র জাদেজা। ১৭ তম ওভারে পরপর দুটি চারও মারেন ধোনি। ওভার শেষে সিএসকের স্কোর দাঁড়ায় ১২৯ রানে ৪ উইকেট। ১৮ তম ওভারে আসে ৯ রান। ১৯ তম ওভারে একটি বিশাল ছক্কা মারার পর আউট হন ধোনি। নটরাজনের বলে ২১ রান করে আউট হন তিনি। শেষ ওভারের প্রথম বলেই খালিল আহমেদের বলে আউট হন ব্রাভো। ২০ ওভার শেষে সিএসকের স্কোর দাঁড়ায় ১৬৭ রান। শেষে ১০ বলে ২৫ রানের ছোট্ট কিন্তু কার্যকরী ইনিংস খেলেন রবীন্দ্র জাদেজা। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের টার্গেট ১৬৮ রান।