টানা তিন ম্যাচ হারের মুখ দেখে ধুঁকছিল সিএসকে। কিন্তু কাল পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে ঘুরে দাঁড়ানোর ম্যাচে পুরোপুরি সফল মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস। দুবাই ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে ১০ উইকেটে পঞ্জাবকে হারিয়ে চলতি আইপিএলে নিজেদের দ্বিতীয় জয় তুলে নিল ইয়েলো আর্মি। এদিন প্রথমে ব্যাট করে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৭৮ রান করে কিংস ইলেভেন পঞ্জাব। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১৭ ওভার ৪ বলে ১৮১ রান করে ম্যাচ বের করে দেয় চেন্নাই সুপার কিংস। অনবদ্য ব্যাটিং করেছেন চেন্নাইয়ের দুই ওপেনার ফাফ দু প্লেসিস এবং শেন ওয়াটসন। ৫৩ বলে ৮৩ রান করে আপরাজিত শেন ওয়াটসন এবং ৫৩ বলে ৮৭ রান করে অপরাজিত থাকলেন ফাফ দু'প্লেসি।

কাল টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন অরেঞ্জ ক্যাপধারী কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের অধিনায়ক কেএল রাহুল। ‌শুরুটাও মন্দ হয়নি তাঁদের। প্রথম উইকেটে রাহুল এবং আগরওয়াল ৮ ওভারে ৬১ রান যোগ করেন। কিন্তু তারপরই আউট হন মায়াঙ্ক। ভাল শুরু করেও মাত্র ২৭ রানে আউট হয়ে ফেরেন মনদীপ সিংও। এরপর ৬৩ রান করে আউট হন রাহুল। তবে শেষদিকে পুরানের ১৭ বলে ৩৩ রানের ইনিংসের জন্য দলের রান ১৭০ রানের গণ্ডি পেরোয়। নির্ধারিত ২০ ওভারে চার উইকেটে ১৭৮ রান তোলে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। চেন্নাইয়ের হয়ে পেসার শার্দুল ঠাকুর দুটি উইকেট পান।

১৭৯ রানের লক্ষ্যমাত্রা যেকোনও দলের কাছে দুবাইয়ের এই মাঠে কঠিন। তার উপর ওপেনিং জুটি হোক কিংবা মিডল অর্ডার দু প্লেসিস এবং স্যাম ক্যারান বাদে গোটা টুর্নামেন্টে তেমন দাগ কাটতে পারেননি কেউ। দু প্লেসিসই একমাত্র ব্যাটসম্যান যিনি প্রতিম্যাচে কিছুটা হলেও রান করেছেন। এদিনও তিনি রান পেলেন। তবে চেন্নাই শিবিরকে স্বস্তি দিয়ে ফর্মে ফিরলেন অজি তারকা শেন ওয়াটসন। করলেন ৫৩ বলে ৮৩ রান। মারেন ১১টি চার। তাদের দুজনের ভয়ংকর সুন্দর পার্টনারশিপই ঘুরিয়ে দেয় ম্যাচের মোড়