আবার তিনি প্রমাণ করলেন কেনও তিনি 'দাদা'। নিজের নামের সঙ্গে সুবিচার করলেন তিনি। তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ বিশ্ব জুড়ে ক্রিকেট প্রেমিরা। তিনি বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। সারা বিশ্ব যেখানে বিশ্ব মহামারীর আতঙ্কে ত্রস্ত। চলছে মৃত্যু মিছিল। একের পর এক পিছিয়ে যাচ্ছে বিশ্ব জুড়ে বড় বড় স্পোর্টিং ইভেন্ট। তালিকায় অলিম্পিক, টি২০ বিশ্বকাপের মত নাম। তখন সমস্ত সুরক্ষাবিধি মেনে একজন ক্রিকেটার ও স্টাফদের অসুস্থ হতে না দিয়ে সফল ভাবে আয়োজন করে ফেললেন মিলিয়ন ডলার ক্রিকেট শো৷ আর সাফল্যের জন্য গোটা ক্রিকেট বিশ্ব কুর্নিশ জানাচ্ছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে।

তবে এতটা সোজা ছিল না সেই পথ। চলতি বছরের ২৯ মার্চ থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল আইপিএল। কিন্তু করোনা মহামারীর কারণে তা অনির্দিষ্ট কালের জন্য পিছিয়ে যায়। একসময় প্রতিযোগিতা হবে কিনা তা নিয়েও দেখা দিয়েছিল সংশয়। কিন্তু হাল ছাড়েননি যেই মানুষটি তার নাম সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। যেনতেন প্রকারে আইপিএল আয়োজন করার জন্য বদ্ধপরিকর ছিলেন তিনি। অবশেষে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টি২০ বিশ্বকাপ স্থগিত হতেই খুলে যায় আইপিএলের ভাগ্যের দরজা। বিশ্বকাপের উইন্ডোতে আইপিএল করার অনুমতি পায় বিসিসিআই। দেশে করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না থাকায়, আরব আমিরশাহিকে বেছে নেওয়া হয় আইপিএলের ভ্যেনু হিসেবে। তারপর প্রায় ২ মাস ধরে টুর্নামেন্ট হওয়ার পর মহ্গলবার হয়ে গেল ফাইনালও। আর পুরো বিষয়টাই হল সাফল্যের সঙ্গে। সকলে যখন হাল ছেড়ে দিয়েছিলেন আইপিএল  নিয়ে, তখন একটি মানুষই আইপিএল হবে আশ্বস্ত করেছিলেন, কার নাম সৌরভ গঙ্গোপাধ্য়ায়।

আসলে কোনও প্রতিকুলতার কাছেই হার না মানা জেদ যে তার মজ্জায় মজ্জায়। তা সে বেটিং জর্জরিত ভারতীয় ক্রিকেটে অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব নেওয়া ও দলকে সাফল্যের শীর্ষে নিয়ে যাওয়া থেকে শুরু করে, লর্ডসের গ্যালারিতে ন্যাটওয়েস্ট জিতে টি-শার্ট ঘোরানো, দল থেকে বাদ পড়ে মহারাজকয়ী প্রত্যাবর্তন, বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট নির্বাচন, দিন-রাতের টেস্ট ম্যাচ আয়োজন করা, সবকিছুই তিনি সাফল্যের সঙ্গে করেছেন। এবার করোনা আবহে বিশ্বের সবথেকে জনপ্রিয় টি-২০ লিগ আইপিএলের আয়োজন করে বুঝিয়ে দিলেন এখনও তিনি লড়াই করতে জিততে যানেন। সৌরভের এই সাফল্য়ের পর তার অনুগামীরা কেউ বলছেন একেই বলে 'দাদাগিরি' কেউ আবার বলছেন 'মহারাজা তোমারে সেলাম'।