এটিকে সঙ্গে গাঁটছড়া বেধে আইএসএলের মঞ্চে আত্মপ্রকাশ। প্রথম মরসুমেই দুরন্ত ছন্দে  ফুটবল উপহার। সমর্থকদের প্রত্যাশা পূরণ করে আজ আইএসএল ফাইনালে এটিকে মোহনবাগান। আবির্ভাবেই ট্রফি জিতে ১৩১ বছরের গরিমাকে আরও সমৃদ্ধ করাই লক্ষ্য অ্যান্টোনিও লোপেজ হাবাসের দলের। তবে ফাইনালের লড়াই যে বেশ কঠিন তা ভালোই জানে সবুজ-মেরুণ ব্রিগেড। কারণ প্রতিপক্ষ দলের নাম আইএসএলের লিগ চ্যাম্পিয়ন ও চ্যাম্পিয়নস লিগে যোগ্যতা অর্জনকারী মুম্বই সিটি এফসি। ফলে গোয়ার মান্ডবী নদীর তীরে ফতোরদা স্টেডিয়ামে ফুটবলে ভারত সেরার লড়াই ঘিরে চড়ছে পারদ।

আত্মবিশ্বাসী সবুজ মেরুণ ব্রিগেড-
গ্রুপ লিগে মুম্বই সিটি এফসির কাছে দুবারই জয় অধরা ছিল এটিকে মোহনবাগানের। গ্রুপের শেষ ম্যাচ মুম্বইয়ের কাছে হেরে হাতছাড়া হয় লিগ  চ্যাম্পিয়নের শিরোপা ও চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার সুযোগ। তাই আজকের মেগা ফাইনাল একদিক থেকে বদলার ম্যাচ এটিকে মোহনবাগানের কাছে। একইসঙ্গে ম্যাচের আগে আত্মবিশ্বাসের সুর শোনা গিয়েছে বাগান কোচের মুখেষ লোপেজ হাবাস বলেছেন,'গত দুটো ম্যাচ নিয়ে ভেবে লাভ নেই। প্রথম ম্যাচে আমরা গোল করতে পারতাম। গত ম্যাচে ওরা সেট পিস থেকে গোল করেছিল। তাই এই ম্যাচে আমরা সেই ভুলের পুনরাবৃত্তি করব না। কারণ এটা ফাইনাল। আমরা ভাল দল বলেই ফাইনাল খেলতে নামছি। আমাদের উপর অনেকে ভরসা করে আছে। তাই আমাদের জিততেই হবে। ফলে একফোঁটাও ভুল করা চলবে না।' কিছু চোট সমস্যা অবশ্য রয়েছে এটিকে মোহনবাগানে। এদু গার্সিয়ার ডান পায়ের ঊরুর চোট এখনও না সারায় ফাইনালে তাকে পাওয়া যাবে না। সেটপিসে সমস্যা থাকায়  অনুশীলনে সেটপিস থেকে গোল করা ও গোল বাঁচানো দুই ক্ষেত্রেই জোর দিয়েছেন হাবাস। গোল করার ক্ষেত্রে রয় কৃ্ষ্ণা, ডেভিড উইলিয়ামস, মার্সেলিনহো, মনভীর সিংয়দের দুরন্ত ফর্ম ভরসা দিচ্ছে  বাগান কোচকে। সব মিলিয়ে ফাইনালের আগে আত্মবিশ্বাসী গোটা এটিকে মোহনবাগান দল।

অপ্রতিরোধ্য মুম্বই সিটি এফসি-
প্রতিযোগিতার শুরু থেকেই দুরন্ত ফর্ম ধরে রেখেছেন সার্জিও লোবেরার মুম্বই সিটি এফসি। লিগ চ্যাম্পিয়ন হয়ে ইতিমধ্যেই চ্যাম্পিয়নস লিগের যোগ্যতা অর্জন করে ফেলেছে মুম্বইষ সেমি ফাইনালে গোয়ার বিরুদ্ধে সাডেন ডেথে জিতে দৃঢ় মানসীকতার পরিচয় দিয়েছে গোটা দল। তাই ফাইনালেও নিজেদের অপ্রতিরোধ্যতা ধরে রাখতে মরিয়া লোবরার দল। দুরন্ত ছন্দে রয়েছেন  কালু ওগবেচে, মন্দার রাও দেশাই, অ্যাডাম লে ফন্দ্রে, জ্যাকিচাঁদ সিংহরা। সার্জিও লোবেরা বলেছেন,'ফাইনাল ম্যাচ সবসময় আলাদা। বাড়তি চাপ থাকবে। তাই ওদের বিরুদ্ধে গত দুটো ম্যাচে কী ফলাফল হয়েছে সেটা ভেবে লাভ নেই।' বিপক্ষকে সমীহ করলেও, নিজের দলের প্লেয়ারদের উপর ভরসা রাখছেন মুম্বই সিটি অফসির স্প্যানিশ কোচ। প্রথমবার ট্রফি জিততে মরিয়া বাণিজ্য নগরীর দল।

ম্যাচ প্রেডিকশন-
দুই দলই প্রতিযোগিতার শুরু থেকেই দুরন্ত ছন্দে রয়েছে দুই দল। রক্ষণ, মাঝমাঠ থেকে আক্রমণ  সব বিভাগেই দুই দল খুবই শক্তিশালী। তবে এটা মু্ম্বইয়ের প্রথম ফাইনাল। অপরদিকে মেগা ফাইনাল খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে হাবাসের দলের। কিন্তু আজকের ফাইনালে যে তুল্যমূল্য লড়াই হবে তা নিশ্চিৎ। ফলে যেই দল প্রথম গোল করতে পারবে তাদেরকেই এগিয়ে রাখছে ফুটবল বিশেষজ্ঞরা।