উত্তমা সরকার, জলপাইগুড়ি:  কথায় বলে হাতি কাদায় পড়েছে। এবার তেমনই ঘটনা ঘটল ডুর্য়াসের চা-বাগানে। রীতিমতো বেলচা দিয়ে কাদামাটি সরিয়ে নালা থেকে হস্তিশাবককে উদ্ধার করলেন স্থানীয় বাসিন্দারা। ঘটনাটি ঘটেছে জলপাইগুড়ির বানারহাটের পলাশবাড়ি চা বাগানে। 

আরও পড়ুন: করোনা সংক্রমণে বাড়ছে বিপদ, কন্টেনমেন্ট জোনের আওতায় আরও ২৯টি এলাকা

স্থানীয় সূত্রে খবর, মঙ্গলবার ভোরে ২০ থেকে ২৫টি হাতির একটি দল ঢোকে পড়ে পলাশবাড়ি চা বাগানে। কোনওভাবে দলছুট হয়ে যায় একটি হস্তিশাবক। বাগানে যখন একা একাই ঘোরাঘুরি করছিল সে, তখনই ঘটে বিপত্তি। চা বাগানের ৪৯ নম্বর সেকশনের কাছে একটি নালায় পড়ে যায় হস্তিশাবক। পিঠটি কাদা মাটিতে আটকে যাওয়ায় পা-গুলি উপরের দিকে পড়েছিল। বেকায়দায় পড়ে গিয়ে নালার ভিতর ছোট্ট হাতিটি ছটফট করছিল।

আরও পড়ুন: খোলা জায়গায় পড়ে রইল করোনা আক্রান্তের দেহ, আতঙ্ক ছড়াল খোদ মন্ত্রীর ওয়ার্ডে

বেলা গড়াতে ঘটনাটি নজরে পড়ে স্থানীয় বাসিন্দাদের।  খবর দেওয়া হয় বিন্নাগুড়ি রেঞ্জের বনকর্মীরা। তবে বনকর্মীদের অপেক্ষায় না থেকে বেলচা গিয়ে কাদামাটি সরিয়ে হস্তিশাবকটিকে উদ্ধার চেষ্টা করে শুরু করে দেন স্থানীয় বাসিন্দারা।  শেষপর্যন্ত হাতিটিকে উদ্ধারও করে ফেলেন তাঁরা। এদিকে ততক্ষণে হাতির দলটি কারবালা চা বাগানের দিকে চলে গিয়েছে। হস্তিশাবকটিকে সেই পথে চলে যায়।