ঝাড়খন্ডের ঝাড়গ্রাম সীমান্ত এলাকায় রেললাইনে কাটা পড়ে মারা গেল এক পূর্ন বয়ষ্ক হাতি। ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়খন্ডের চাকুলিয়া থানার শুনশুনিয়াতে। তবে হাতির মৃত্যুতে, শোকের ছায়ার পাশাপাশি কিছু মানুষ খুশিও। কারন তাদের ধারনা গত কয়েক দিনবেশ কয়েকজন মানুষকে মেরেছে এই হাতিটি।

আরও পড়ুন, ছেলের সহপাঠিনী-কে খুন করেছিল মা, হাওড়া আদালত দিল যাবজ্জীবনের সাজা


সূত্রের খবর,  ঝাড়খন্ড ও বাংলা সীমান্ত এলাকা গিধনীর কাছে বেশ কয়েক দিন ধরে শবর পাড়ায় তান্ডব চালাচ্ছিলো তিনটি হাতি। তাদের আক্রমনে মারাও যায় বেশ কয়েকজন । গতকাল ঐ হাতি গুলো ফের সীমান্ত এলাকায় আসার সময় ডাউন লাইনে কাটা পরে বলে বক্তব্য মানুষের। তবে বার বার এই ট্রেনের ধাক্কায় হাতি মারা যাওয়ার ঘটনার জন্য রেলের গতি কমানোর কথাও বলছে এলাকাবাসী।

আরও পড়ুন, পুরপ্রধানের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ, পোস্টারে ঢাকল পুরসভা

গত বছর ডিসেম্বরে  ট্রেনের ধাক্কায় হাতির মৃত্যু হয়েছিল উত্তরবঙ্গে। দুর্ঘটনাটি ঘটেছিল শিলিগুড়ি লাগোয়া খড়িবাড়ি ব্লকের অধিকারী এলাকায়। সেবার ট্রেনের ধাক্কায় মারা যায় একটি গর্ভবতী হাতি ও একটি পাঁচ বছরের হাতি। উত্তরবঙ্গে বারবার ট্রেনের ধাক্কায় হাতির মৃত্যুর ঘটনায় উদ্বিগ্ন পরিবেশপ্রেমীরা। নিয়ম অনুযায়ী, হাতির করিডরে ধীরগতিতে ট্রেন চলার কথা। তাই রেলের বিরুদ্ধে গাফলতির অভিযোগ দায়ের করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল বনদপ্তর। ময়নাতদন্তের পর ঘটনাস্থলের কাছে হাতিটি দুটি শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়। ফুল দিয়ে নিহত হাতি দুটিকে শ্রদ্ধা  জানান স্থানীয় বাসিন্দারা।  

আরও পড়ুন, কলকাতার তাপমাত্রা নামল স্বাভাবিকের নিচে, বৃষ্টির কোনও সম্ভাবনা নেই