দশ দিনের সদ্যোজাতের মৃত্যু হল এনআরএস-এ। অস্ত্রোপচারের পর নিম্নমানের সুতো দিয়ে ক্ষতস্থান সেলাই এর অভিযোগ উঠল শিয়ালদহের এনআরএস হাসপাতালের বিরুদ্ধে ৷ কিছুদিন ধরে অভিযোগ উঠছিল, সরকারি হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের পর নিম্নমানের সুতো দিয়ে সেলাই করা হচ্ছে । এবার সেই সুতোর জেরে মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে গেল এনআরএস হাসপাতালে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এনআরএস-এ মৃত্যু হল মাত্র দশ দিনের এক শিশুর।

আরও পড়ুন, ১৪ দিনের লড়াইয়ের পর ছুটি দিব্যাংশের, মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ শিশুর পরিবারের

সূত্রের খবর, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি উত্তর ২৪ পরগনার বাদুড়িয়ার বাসিন্দা লিভিয়া পারভীন শিয়ালদহ এনআরএস হাসপাতালে পুত্র সন্তানের জন্ম দেন। জন্মের পর শিশুর ওজন স্বাভাবিকের থেকে অনেকটাই কম ছিল। প্রিম্যাচিওর বা অপরিণত অবস্থায় শিশুটির জন্ম হয়। শিশুটির পায়ুদ্বার বা মলদ্বার সঠিক ভাবে তৈরি না হওয়ায় চিকিৎসকরা তার মলদ্বারের অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন। জন্মানোর কিছুক্ষণ পরেই তার অস্ত্রোপচার করা হয়। তবে সুতো ছিঁড়ে যাওয়ায় ৫ দিন পর গত ২২ ফেব্রুয়ারি ফের অস্ত্রোপচার করতে হয়। এখানেই শেষ নয়, ফের সুতো ছিড়ে যায়। এরপর সুতো ছিড়ে যাওয়ার দরুণ গত ২৬ তারিখ, বুধবার তৃতীয়বারের জন্য অস্ত্রোপচার করতে হয়। তিন, তিনবার অস্ত্রোপচারের ধকল নিতে পারেনি শিশুটি। অভিযোগ, তার পরিবারের। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সদ্যোজাতের মৃত্যু হয়। এরপরই বিক্ষোভে ফেটে পড়ে এই সদ্যজাতের পরিবার।

আরও পড়ুন, লাভপুর হত্যাকাণ্ডে সাময়িক স্বস্তি, ২ মার্চ সিউড়িতে হাজিরা মুকুলের

অপরদিকে ,ইতিমধ্যেই এই বিষয়টি পেডিয়াট্রিক সার্জারি বিভাগের নজরে নিয়ে আসা হয়েছে। এই বিভাগেই অস্ত্রোপচার হয়েছিল ওই দশ দিনের শিশুটির। গোটা ব্যাপারটা নজরে আসতেই নড়েচড়ে বসেছে পেডিয়াট্রিক সার্জারি বিভাগ। তাদের তরফে লিখিতভাবে নমুনাসহ জানানোও হয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে। কোন সংস্থা ওই সুতো সরবরাহ করেছে তার খোঁজ চালাচ্ছে এনআরএস কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন, জঙ্গলমহলের এই 'ফরেস্টম্য়ান' সারাটা জীবন রাত জেগে থাকতেন, 'জঙ্গলে আগুন লাগতো না তো'