Asianet News Bangla

গণতন্ত্রের নামে গোয়েন্দাগিরি করছে মোদী সরকার, ১০টি পয়েন্টে দেখে নিন তৃণমূল নেত্রীর বক্তব্য

বুধবার ২১শে জুলাইয়ের মঞ্চ থেকে এক নয়া ভূমিকায় অবতীর্ণ হলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একনজরে তাঁর বার্তার ১০টি গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট। 

10 points from speech of Mamata Banerjee on 21 st July Shahid Divas bpsb
Author
Kolkata, First Published Jul 21, 2021, 3:26 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

বুধবার ২১শে জুলাইয়ের মঞ্চ থেকে এক নয়া ভূমিকায় অবতীর্ণ হলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাখির চোখ ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচন।  

১. পেগাসাস ও ফোন ট্যাপ ইস্যু

পেগাসাসের নাম করে আপনার আমার সবার ফোনে আড়ি পাতা হচ্ছে। সবার ফোন ট্যাপ করা হচ্ছে। কাউকে ফোন করা যায় না, ফোন ট্যাপ করা থাকে। কারোর ওপর বিশ্বাস করা যায় না। কেন্দ্র সরকার আমার ফোন ট্যাপ করছে, রেকর্ড করছে। বিরোধীদের ফোন ট্যাপ করা হচ্ছে। এই কেন্দ্র সরকারকে না সরানো হলে গোটা দেশ বরবাদ হয়ে যাবে। গণতন্ত্রের নামে গোয়েন্দাগিরি করছে সরকার। 

২. করোনা পরিস্থিতি সামলাতে ব্যর্থ মোদী সরকার

কোভিডে মনুমেন্টাল ফেলিওর মোদী সরকারের। মোদী সরকারের জন্য গোটা দেশ থেকে ৪ লক্ষ মানুষ করোনায় মারা গিয়েছেন। অক্সিজেন না পেয়ে মারা গিয়েছেন সেই সব মানুষ। মমতা বলেন কোভিড পরিস্থিতিতে  টিকা নেই, অক্সিজেন নেই। মৃতদেহ ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছে গঙ্গায়। কোভিড নিয়ে দেশকে শেষ করে দিয়েছে মোদী সরকার

৩. ভ্যাকসিনের ঘাটতি দেশ জুড়ে

ভ্যাকসিনের ঘাটতি নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি। তিনি বলেন, যে গতিতে টিকাকরণ চলছে তাতে দেশের সব মানুষকে দুটি করে ডোজ দিতে কত বছর লাগবে? সাধারণ মানুষের জীবন নিয়ে ছেলেখেলা করছে মোদী সরকার। করোনার তৃতীয় ঢেউ নিয়ে এখনও কোনও পরিকল্পনা নেই বিজেপির। 

৪. বিরোধী দলগুলিকে নিয়ে বৈঠক হোক

বিরোধী দলগুলিকে বৈঠকের ডাক। শরদ পাওয়ারকে আহ্বান জানান মমতা, যাতে অ-বিজেপি দলগুলিকে নিয়ে বৈঠকে বসা যায়। দেশ জুড়ে চলা সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠকের আবেদন করেছেন মমতা। 

৫. ১৬ই অগাষ্ট খেলা দিবস

১৬ই অগাষ্ট খেলা দিবস হিসেবে পালন করা হবে গোটা রাজ্যে। বিজেপিকে যতদিন না দেশ থেকে তাড়াচ্ছি, রাজ্যে রাজ্যে খেলা হবে, ডাক দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি এদিন বলেন খেলা একটা হয়েছে, আবার খেলা হবে। 

৬. গণতন্ত্রের তিন ভিতই দখল করেছে বিজেপি

নির্বাচন কমিশন, সংবাদমাধ্যম এবং বিচার ব্যবস্থা - গণতন্ত্রের তিনটি ভিতই দখল করেছে বিজেপি। এই সরকারকে অবিলম্বে দেশ থেকে হঠাতে হবে। এবার পেগাসাস দিয়ে রাজনৈতিক নেতাদেরও বশ করা চেষ্টা করছে। মূল্যবৃদ্ধি, বেকারি নিয়ে ছেলেখেলা করছে কেন্দ্র। 

৭. জ্বালানির দাম

তিনি কেন্দ্রীয় সরকারকে বিঁধতে ছাড়েননি। তিনি জানান, গত দুমাসে ৪৭বার বেড়েছে গ্যাসের দাম। ৩.৭ লক্ষ কোটি টাকা কেন্দ্র সংগ্রহ করেছে জ্বালানির থেকে। 

৮. বিরোধী ফ্রন্ট ক্ষমতায় এলে বিনামূল্যে রেশন-চিকিৎসা

পুরো দেশে ছড়িয়ে রয়েছে হিংসা, বেকারত্ব। বিরোধী ফ্রন্ট ক্ষমতায় এলে নতুন সরকার আসবে, নতুন আশা, নতুন আলো আসবে দেশে।  সরকারের পরিচয় কাজে, মন কি বাতে নয়। বিরোধী ফ্রন্ট ক্ষমতায় এলে বিনামূল্যে রেশন-চিকিৎসা দেওয়া হবে বলে আশ্বাস মমতার। 

৯. ছাত্র যুবদের মোদী বিরোধিতার ডাক

মমতা এদিন বলেন ছাত্র-যুবদের এগিয়ে এসে মোদী সরকারের বিরোধিতা করতে হবে। বিজেপিতে শুধু গদ্দাররা জন্মায়। দেশের সাধারণ মানুষ একদিন এই গদ্দারদের উত্তর দেবে। গদ্দারদের বিদায় হবে। দলকে আরও সুনাম অর্জন করতে হবে, উন্নততর তৃণমূল তৈরি করুন। জেলায় নতুন-পুরনো কর্মী, মা-বোনেদের গুরুত্ব দিন।

১০. করোনা পরিস্থিতি মিটলে ব্রিগেড সমাবেশের আয়োজন

একুশে জুলাইয়ের মঞ্চ থেকে তৃণমূল নেত্রী জানান, কোভিড মিটলে শীতকালে ব্রিগেডে বড় সমাবেশ করবে তৃণমূল কংগ্রেস। সেখানে সব অ-বিজেপি নেতাদের আহ্বান জানানো হবে। 

২১শে জুলাইয়ের সমাবেশটি কেবল বাংলার শাসকদলের পক্ষ থেকে শক্তির প্রদর্শন নয়, এটি একটি প্ল্যাটফর্ম যা পরের বছরের উত্তর প্রদেশ এবং গুজরাটের বিধানসভা নির্বাচন এবং ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের জন্য সুর তৈরি করবে, অন্তত তেমন লক্ষ্য নিয়েই পথ চলা শুরু করছে তৃণমূল কংগ্রেস।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios