সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজের দুই সাফাই কর্মী করোনা পজিটিভ। হাসপাতালের সুপার সহ মোট ৩৬ জনকে পাঠানো হয়েছে কোয়ারেন্টিনে। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে, হাসপাতালের রেডিওলজি বিভাগ এবং কমিউনিটি মেডিসিন বিভাগ। তবে এই হাসপাতালে রোগী পরিষেবা বন্ধ হবে না বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। 

আরও পড়ুন, আগামী ৪৮ ঘন্টায় আছড়ে পড়বে ভয়ানক ঘূর্ণিঝড় '‌আমফান', সঙ্গে অতিভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস


জানা গিয়েছে, কামারহাটি ব্যানার্জি বাগান এলাকার একই পরিবারের দুইজন মারহাটি সাগর দত্ত মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কর্মরত। দিদি কমিউনিটি মেডিসিন বিভাগের নার্স এবং ভাই চুক্তিভিত্তিক সাফাই কর্মী। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বক্তব্য, প্রায় ৫ দিন হয়েছে, ওই নার্স কাউকে কিছু না জানিয়েই জ্বর নিয়ে বাড়িতেই ছিলেন।  মঙ্গলবার জ্বরের সঙ্গে শ্বাসকষ্ট শুরু হয় হওয়ায় তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং তার সঙ্গে তার ভাইকে ভর্তি করানো হয়। দুজনের লালারসের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হলে, রিপোর্ট পজেটিভ আসে। ভাই-বোন দুই জনকেই টালিগঞ্জ এমআর বাঙ্গুর হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। অপরদিকে, নার্স এবং সাফাই কর্মী ভাই-বোন করোনা আক্রান্ত হওয়ার পরই সাগর দত্ত হাসপাতালে ৩৬ জনকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। খোদ হাসপাতাল সুপার, কুড়ি জন চিকিৎসক এবং রেডিওলজি বিভাগ ও কমিউনিটি মেডিসিন বিভাগের ১৫ জন কর্মীকেও হোম কয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে, হাসপাতালের রেডিওলজি বিভাগ এবং কমিউনিটি মেডিসিন বিভাগ।

আরও পড়ুন, ফুটপাতে রোগী ফেলে পালানোর চেষ্টা পিপিই বেশধারী স্বাস্থ্যকর্মীদের, দেখুন ভিডিও


উল্লেখ্য় কামারহাটি সাগর দত্ত মেডিকেল কলেজ উত্তর শহরতলির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ হাসপাতাল। বেলঘড়িয়া, দক্ষিণেশ্বর, সোদপুর, খড়দা, ব্যারাকপুর সহ বিস্তীর্ণ এলাকার মানুষের চিকিৎসার জন্য় নির্ভর করে এই হাসপাতালে। এদিকে এই ঘটনায় সাগর দত্ত হাসপাতালে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। তবে এই হাসপাতালে রোগী পরিষেবা চালু থাকবে বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।