রাজ্য়ের খাতায় এখনও ১৫০ পেরোলো না। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য় মন্ত্রকের বুলেটিন বলছে, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত রাজ্য়ে ২৩১ জন করোনা সংক্রমণের শিকার হয়েছেন। যদিও খুশির খবর, সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪২ জন। এখনও পর্যন্ত  রাজ্য়ে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৭।
 
যদিও এই হিসেবের সঙ্গে মিলছে না রাজ্য় সরকারের হিসেব। নতুন করে রাজ্য়ে আরও ২৪ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। যার জেরে  বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৪৪। তবে রাজ্য়ের হিসেবে বেড়েছে করোনায় মৃতের সংখ্যা । সাত থেকে এখন তা ১০। এদিন নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে এমনই জানিয়েছেন মুখ্যসচিব।

রাজ্য়ের নতুন হিসেব বলছে, করোনা সংক্রমণ থেকে মুক্ত হয়েছেন আরও ৯ জন। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত মোট ৫১ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। তবে এদিন করোনা রুখতে রাজ্য় সরকার কী কী করছে তারও পরিসংখ্য়ান তুলে ধরেছেন মুখ্য়সচিব। করোনা মোকাবিলায় রাজ্যজুড়ে ২ লক্ষ ২৩ হাজার মাস্ক দিয়েছে রাজ্য সরকার। রাজ্যজুড়ে স্বাস্থ্যকর্মীদের সাড়ে ৩ লক্ষ পিপিই দেওয়া হয়েছে। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে করোনা টেস্ট হয়েছে ৩৮১১টি। মুখ্যসচিব জানিয়েছেন, রাজ্যে ৩৬,৯৮২ জন হোম কোয়ারান্টাইনে রয়েছেন। পাশাপাশি রাজ্যে সরকারি কোয়ারান্টাইনে রয়েছেন ৩৯১৫ জন। 

এতদিন ধরে রাজ্য়ে করোনায় মৃতের সংখ্য়া গোপনের দাবি  করছিল বিরোধীরা। এদিন দেখা গিয়েছে, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য় মন্ত্রকের রিপোর্টে ৭জন মৃত দেখালেও রাজ্য়ের রিপোর্টে মৃত বেড়েছে তিন জন। এদিকে, সারা দেশে বেড়েই চলেছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। পরিসংখ্য়ান বলছে, দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১২ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া সংখ্যা অনুযায়ী বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১২,৩৮০। এখনও পর্যন্ত করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪১৪।