মোট ৩০ জন আইপিএস অফিসারের বদলির নির্দেশ দিল প্রশাসন। আর তারই মধ্য়ে কলকাতা পুলিশের ডিসি দক্ষিণ শহরতলী সুদীপ সরকারকে সরানো হল। তাঁকে সরিয়ে নিয়ে আসা হল গোয়েন্দা বিভাগে। তবে কেন এই বদলি, তা নিয়ে কোনও এখনও সরকারি ভাবে কোনও কারণ বলা হয়নি। 

আরও পড়ুন, কুয়াশায় ঢাকা শহরে তাপমাত্রা বাড়ল ৪ ডিগ্রি, কাল থেকে বৃষ্টি কলকাতায়

সূত্রের খবর, মঙ্গলবার নবান্ন থেকে আইপিএসের রদবদল নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আর তারপরই সুদীপ সরকারের জায়গায় দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে প্রদীপ যাদবকে। অপরদিকে প্রদীপ যাদবের জায়গায় ডিসি এসটিএফ হচ্ছেন অপরাজিতা রাই। জানা গিয়েছে, সবমিলিয়ে মোট  ৩০ জন আইপিএস অফিসারের বদলির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন, বিচারককে লক্ষ্য করে জুতো 'জঙ্গি মুসার' , ব্যাংকশাল আদালতে উত্তেজনা


 গত পাঁচই জানুয়ারি জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনার প্রতিবাদে মিছিল করেছিলেন যাদবপুরের পড়ুয়ারা। পাল্টা মিছিল করা হয়েছিল বিজেপির তরফেও। অভিযোগ, যাদবপুরে সুলেখার মোড়ে পড়ুয়াদের উপর লাঠি চালায় পুলিশ। সেই ঘটনায় রীতিমত বিরক্তি প্রকাশ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি পার্থ চট্টোপাধ্য়ায় এই ঘটনায় যথেষ্ট ক্ষুব্ধ ছিলেন। অপরদিকে পড়ুয়াদের উপর লাঠি চালানোর পর এক পুলিশকর্তা নিজেই ভূল করে লাঠিচার্য করা হয়েছে বলেও স্বীকারোক্তি দেন।  তবে কি সেই ঘটনার জেরেই কি সুদীপ সরকারের বদলি করা হল, সে বিষয়ে এখনও সরকারি ভাবে কোনও কারণ বলা হয়নি। এছাড়াও আরও ২৯ পুলিশ কর্তার বদলির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিধাননগরের ডিসি ট্রাফিক হচ্ছেন ধৃতিমান সরকার। তিনি পুরুলিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ছিলেন।