নারদ-মামলায় এদিনও ঝুলে রইল চার হেভিওয়েটের ভাগ্য। সোমবারও জামিন পেলেন না ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, মদন মিত্র এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়।  এদিনের মতো শেষ হয়েছে শুনানি। চারজনকেই আরও দুই দিন গৃহ বন্দি থাকতে হবে। 

আরও পড়ুন, Cyclone Yaas: পরিস্থিতি মোকাবিলায় অমিত শাহর বৈঠক, উপস্থিত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 

 

 

উল্লেখ্য বুধবার বাংলার উপকূলে ঘূর্ণিঝড় যশ আছড়ে পড়ার কথা। ফলে সেদিন ভারচুয়াল শুনানি কি আদৌ সম্ভব হবে কি না তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন নারদ মামলার বিচার পতিরাই। এদিনের শুনানিতে চার নেতার গ্রেফতারি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিচারপতি ইন্দ্রপ্রসন্ন মুখোপাধ্যায় এবং বিচারপতি সৌমেন সেন। তাঁরা জানতে চান, গত সাত বছর ধরে এই মামলা চললেও কেন অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়নি। হঠাৎ চার্জশিট পেশের দিনই কেন তাঁদের গ্রেফতার করা হয়েছে। তাঁর সঠিক জবাব দিতে পারেনি কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। বেলা দেড়টা পর্যন্ত নারদ মামলার ইস্যু ফ্রেম করা হয় বলে খবর। কোন বিষয়গুলিতে মামলা শুনানি চলবে সেবিষয়ে এদিন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিচারপতিরা।

আরও পড়ুন, ঘূর্ণীঝড় আছড়ে পড়ার আগেই প্রস্তুত জাতীয় মোকাবিলা বাহিনী, জানুন কোন পথে আসছে 'যশ' 

 

 


প্রসঙ্গত,  নারদকাণ্ড কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। তবে শেষ অবধি সুপ্রিম কোর্টে আগাম আবেদন করেও কার্যত লাভ হয়নি কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার।   নারদ মামলায় সুপ্রিম কোর্টে সিবিআই-র আর্জি খারিজ হয়েছে। এদিন কলকাতা হাইকোর্টের বৃহত্তর বেঞ্চে এই মামলার শুনানি চলেছে। সোমবার ৫ বিচারপতির বেঞ্চ সাফ জানিয়ে দিয়েছে, 'শুনানি চলবেই। চাইলে কলকাতা হাইকোর্টই নারদ মামলার নিষ্পত্তি করতে পারে।'আগামী বুধবার ফের নারদ মামলার শুনানি হবে কলকাতা হাইকোর্টে।