বৃদ্ধা খুনের ঘটনায় চাঞ্চল্য় ছড়াল গড়িয়াহাট এলাকায়। গড়িয়াহাটে একটি বহুতল থেকে উদ্ধার করা হল বছর সত্তর বছরের এক বৃদ্ধার রক্তাক্ত দেহ। জানা গিয়েছে, উর্মিলা ঝুন্ডি নামে ওই বৃদ্ধা বাড়িতে একাই থাকতেন। এলাকার বাসিন্দারাই পুলিশকে খবর দেন। ইতিমধ্য়েই পুলিশ তদন্দে নেমেছে। 

আরও পড়ুন, আন্দোলন স্থগিত, রাজ্য সরকারকে তিন মাস সময় দিলেন পার্শ্বশিক্ষকরা

বৃহস্পতিবার সকাল বেলায় ডাকতে গিয়ে প্রতিবেশীরা ওই বৃদ্ধার গলার নলি কাটা দেহ পড়ে থাকতে দেখেন । প্রতিবেশীদের থেকে  খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে আসে  পুলিশ। লালবাজার হোমিসাইড শাখার তরফ থেকেও রিপোর্ট নেওয়া হয়। এছাড়া ঘটনাস্থলে আসেন জয়েন সিপি ক্রাইম মুরলীধর শর্মা । বৃদ্ধার ঘরের সমস্ত জিনিস লন্ডভন্ড ছিল। সেখানে নিয়ে আসা হয়েছে স্ক্যানার মেশিন ও কুকুর। খুনের কারণ জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। 

আরও পড়ুন, পেঁয়াজের দাম মোকাবিলায় চার্ট ঝোলানোর নির্দেশ, নচেৎ ব্য়বস্থা নেবে পুলিশ

লুটের জন্য় খুন কিনা তাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ। কিন্তু বৃদ্ধার গলায় মালা, হাতে বালা, ঘরে রাখা টাকা সবই অক্ষত আছে। তাই এখনও বৃদ্ধার মৃত্য়ু ঘিরে ধোঁয়াশা রয়ে গিয়েছে। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান,  সম্ভবত দুজনের বেশি এই খুনের ঘটনায় যুক্ত রয়েছে।  এক বাসিন্দা জানালেন, তাদের এলাকার পাশেই বস্তি এলাকা। সেখান থেকেই রাত বাড়লেই লোকজন নেশা করতে আসে। তাই নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতে থাকার জন্য় রাস্তার মোড়ে সিসিটিভি বসানোর আর্জি অনেকদিন ধরে জানিয়ে এসেছেন। বৃদ্ধা খুনের ঘটনায় এই বিষয়গুলিও যুক্ত কিনা, তদন্ত করছে পুলিশ।