বাংলায় সচেতনতা ফেরাতে শহরে রাজারহাটে বিশাল বড় সাইকেলিং রেস আয়োজিত হতে চলেছে শনিবার।  শনিবার সকাল সাতটায় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে শুরু হবে এই বিশালাকার সাইকেলিং রেস। অংশ নেবেন শহরের সেলেবরাও।

আরও পড়ুন, ভোট প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে কলকাতায় উপনির্বাচন কমিশনার, একুশের আগে ৫ দিনের সফরে সুদীপ জৈন

 

 

 

করোনা আবহে একেই ২০২০ সালের প্রায় অধিকাংশ সময়টাই বেরিয়ে গিয়েছে ঘরবন্দি অবস্থায়। তারপর মাঝে গিয়েছে বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গা পুজো। কোনও কিছুতেই সেভাবে অংশ নিতে পারেনি বঙ্গবাসী। একদিকে সংক্রমিত হওয়ার ভয়। অন্যদিকে প্রচুর মানুষ উপার্জন হারিয়েছে। যার প্রভাব ২০২১ এও পড়বে। কিন্তু এই মাঝের সময়ে পরিবহণেও এসেছে বাধা। আনলক ওয়ানের পর বেসরকারি সংস্থা গুলির চাপের জেরে বাধ্য হয়ে অফিস গিয়েছে কোভিডের পিক টাইমেও। তবে বহু অসুবিধার সময়ে পরিবহণে বাধা পেয়ে পুরোনো সাইকেলের ধুলো ঝেড়ে রাস্তায় নিয়ে বেরিয়েছে মানুষ। বছরের শেষে মাসে এসে কলকাতা আবার স্বাভাবিক ছন্দে ফিরলেও, সাইকেলিংটা ভূলতে পারেনি কলকাতা। তাই বাস্তবতা আর স্বপ্ন মিলে-মিশে একাকার। আর সেই স্বপ্নকেই উসকে দিয়ে ২৫০ সাইকেলিস্ট অংশ নেবে শনিবার এই অনুষ্ঠানে।

আরও পড়ুন, একুশে জুটবে কি ১০০ আসন তৃণমূলের, ভবিষ্যতবাণী মুকুল রায়ের


অপরদিকে, এই ২৫০ সাইকেলিস্ট মূলত যারা সাধারণত রোজের অভ্যাসের মধ্যেই রয়েছে এবং এখানে যোগদান করবে শহরের সেরা সেলেব্রেটিও। এরপর উদ্ধোধন হবে রোটারি ডেক্সটপ ক্যালেন্ডারের, যেখানে বিখ্যাত সকল ফটোগ্রাফারের তোলা প্রাণবন্ত ছবি শহরের সচেতনতা আরও বাড়িয়ে দেবে। বেলা ১১টায় বরণ বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বদেরও। তবে এখানেই শেষ, উদ্দেশ্য আরও সুদূর বিস্তৃত। শেষ হোক সমাজে পোলিও-এই লক্ষ্য়েও এগিয়ে যাবা রোটারি রবীন্দ্র সরোবরের তরফে সেদিন।