ফের গণপিটুনিতে মৃত্যু খাস কলকাতায়।  সভ্যতার পরাকাষ্ঠার নজির গড়ল প্রাণের শহর। এবার ঘটনাস্থল  মানিকতলার মুচিপাড়া। 

স্থানীয় সূত্রের খবর ওই ব্যাক্তিকে হরিষা হাট থেকে কালচারাল অ্যাসোসিয়েশান ক্লাবে তুলে আনা হয়। তারপর তাকে এলোপাথাড়ি পেটায় ক্লাবের ছেলেরা। বাঁশ, লাঠি, উইকেট দিয়ে পিটিয়ে ওই ব্যক্তিকে ক্লাবের ভিতরে রেখে বাইরে থেকে তালাবন্ধ করে পালায় অভিযুক্তরা।

১৫ নম্বর বাসস্ট্যান্ডের কাছে কালচারাল অ্যাসোসিয়েশান ক্লাব থেকে ওই ব্যাক্তিকে স্থানীয় কিছু মানুষ তালা ভেঙে উদ্ধার করে আর জি কর মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে গেলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে সেখানকার চিকিৎসকেরা। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে মানিকতলা থানার পুলিশ। এ যাবৎ এই ঘটনায় জড়িত সন্দেহে তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন
নিমতায় তৃণমূল নেতা খুন, সিসিটিভি-তে ধরা পড়ল শিউরে ওঠা ছবি
আবার এনআরএস কাণ্ডের ছায়া, বিষ খাইয়ে মারা হল ১২ টি কুকুরকে

গণপিটুনির সংস্কৃতি কলকাতায় ক্রমবর্ধমান।  গত ১৮ মার্চ দক্ষিণ দমদমে ১৯ নং ওয়ার্ডেও এক যুবককে চোর সন্দেহে পিটিয়ে মারা হয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্ন উঠছে, যে দেশে কয়েক হাজার কোটি টাকা জালিয়াতি করে নীরব মোদী বিজয় মাল্যরা দিনের পর দিন ঘোল খাওয়ায় আইনকানুনকে, সেখানেই কী ভাবে বিনা প্রমাণে মেরে ফেলা হয় কাউকে! কোটি কোটি টাকার জালিয়াতির অভিযোগ ওঠে খোদ সরকারেরই বিরুদ্ধে, তার বিচার সহজে পাওয়া যায় না। কলকাতা এগোচ্ছে না, পিছোচ্ছে, চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল এই ঘটনা।