কলকাতার বুকে ফের নৃশংস হত্যাকাণ্ড।  এলাকায় ভাড়াটেকে কাঁচি দিয়ে কুপিয়ে খুন করল বাড়িওয়ালা। ঘটনাটি ঘটেছে কলকাতার ট্যাংরা এলাকায়। ইতিমধ্য়েই এই ঘটনায় ৭ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। উদ্ধার করা হয়েছে অস্ত্রও। 

 

 

আরও পড়ুন, মেলেনি কোচিং, তবুও দরিদ্রতার পাহাড় পেরিয়ে মেডিক্য়ালে সফল শ্রমিকের ছেলে সৌরদীপ

 প্রতিবাদ করাই কাল হয় মনোজের


জানা গিয়েছে, নৃশংস হত্যাকাণ্ডের পিছনে মূলত, প্রতিবেশির উপরে হামলার প্রতিবাদের জের। আর এর জন্য খুন হতে হল বাড়িওয়ালার কাছে ভাড়াটে যুবককে। মৃত ওই যুবকের নাম মনোজ রাম। মৃতের মা আরতি রামের অভিযোগ, বাড়িয়ালার ছেলে রবি এবং তার পরিবারের সদস্য গুড়িয়া নামের মহিলাই এই নৃশংস হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। প্রসঙ্গত, প্রতিবেশিরা জানিয়েছে, পুরোনো গোলমালের জেরে রবি এক ভাড়াটে সুনিল দাসকে আচমকা মারধর করে। সেই ঘটনারই প্রতিবাদ করে মনোজ। এরপরেই ঘটনা ভয়ঙ্কর মোড় নেয়।

 আরও পড়ুন, অক্সিজেন সাপোর্ট ছাড়াই রাতে ভাল ঘুম সৌমিত্র-র, আচ্ছন্ন ভাব কাটলেই মিলতে পারে ছুটি

 

 

সুনিলকে বাঁচাতেই ধারাল অস্ত্র দিয়ে কোপায় মনোজকে

 সুনিলকে বাঁচানোর চেষ্টা করাটাই কাল হয় মনোজের। সুনিলকে ছেড়ে মনোজের উপরেই ঝাপিয়ে পড়ে হামলাকারি। এরপরেই ধারাল অস্ত্র দিয়ে কোপায় মনোজকে। তারপর মনোজ রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে যেতেই পালায় রবি। এরপরে হাসপাতালে নিয়ে গেলেও শেষ রক্ষা হয়নি। চিকিৎসকেরা মনোজকে মৃত ঘোষণা করে। দেহ পাঠানো হয়েছে ময়নাতদন্তে। এবং এই ঘটনায় ৭ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।